টা’র্গেট চি’ন, লালফৌ’জের দাপাদাপি ঠাণ্ডা করতে লা’দাখে মো’তায়েন হল অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার…

লা’দাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় এখনো ভারত-চীন উ’ত্তে’জ’না প্রশমন হয়নি। বিগত কয়েক মাস ধরে ভারতীয় ভূখণ্ড দখ’লের চেষ্টা চালাচ্ছে চী’নের পিপলস লিবারেশন আ’র্মি। তবে ভা’রতও প্রত্যুত্তর দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। এজন্য লাদাখের ভা’রতীয় সে’না ঘাঁটিতে একের পর এক নতুন অ-স্ত্র এবং যু-দ্ধ সরঞ্জাম মোতায়েন করছে ভারতীয় সে’নাবাহি’নী।

সম্প্রতি লা’দাখের বায়ু সেনা ঘাঁটিতে সম্পূর্ণভাবে ভারতীয় প্রযুক্তিতে তৈরি দুটি হালকা ওজনের যু-দ্ধ হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হলো। ভারতীয় সে’না সূত্রে জানা গেছে, এই হেলিকপ্টার দুটি দিন-রাত যেকোনো সময়ে শত্রুপক্ষকে লক্ষ্য করে আ’ঘা’ত হানতে পারে। শুধু তাই নয়, হালকা ওজনের এই হেলিকপ্টার লাদাখের যে কোনো উচ্চতায় যু-দ্ধা-স্ত্র বহন করতে সক্ষম।

এই হেলিকপ্টার দুটিতে ৭০ এমএম রকেট এবং চিন মাউন্ট ক্যানন রয়েছে যার যু-দ্ধক্ষে’ত্রে এটি আরও শক্তিশালী হয়েছে। প্রসঙ্গত, বর্তমানে বিদেশ থেকে আমদানিকৃত যু-দ্ধা-স্ত্রের বদলে ভারতীয় প্রযুক্তিতে তৈরি মেশিন গা’ন এবং মি-সা-ই-ল সমেত যু-দ্ধের ট্যাংক তৈরিতে অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসের পর থেকেই বিদেশ থেকে যু-দ্ধা-স্ত্র এবং যু-দ্ধে-র অন্যান্য সরঞ্জাম আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। এর বদলে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি যু-দ্ধা-স্ত্র ব্যবহার করবে ভারতীয় সে’নাবাহিনী। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে স্বভাবতই খুশি দেশীয় যু-দ্ধা-স্ত্র নির্মাণ সংস্থা গুলি।

Reply