ক’রোনা ভ্যাক’সিন আবিষ্কার হলে প্রথমেই পাবে প্রতিবেশী বাংলাদেশ, প্রতিশ্রুতি দিলো কেন্দ্রীয় সরকার

গোটা বিশ্বে ভয়াবহ হয়ে উঠেছে করোনা ভাইরাস। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। গোটা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বিজ্ঞানীরা করোনার ভ্যাকসিন তৈরির জন্য রাত দিন এক করে কাজ করছেন। করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলছে ভারতে। সেই ট্রায়াল সফল হলে ভারতীয়দের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বাংলাদেশকে। ভারতের বিদেশসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বুধবার বাংলাদেশ সফরের দ্বিতীয় দিনে এমনটাই ঘোষণা করলেন। এদিন ঢাকায় বাংলাদেশের বিদেশসচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।

এরপর সাংবাদিক সম্বেলনে হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, ভ্যাকসিন তৈরির ক্ষেত্রে বিশ্বের শীর্ষতম দেশগুলির তালিকায় রয়েছে ভারত। গোটা বিশ্বের ৬০ শতাংশ ভ্যাকসিন তৈরি হয় ভারতেই। করোনা ভ্যাকসিন তৈরি হলে দেশবাসীর পাশাপাশি প্রতিবেশী বন্ধু ও সহযোগী দেশগুলিকে সাহায্য করার ক্ষেত্রে কোনও কার্পণ্য করবে না ভারত বলে জানান তিনি। তিনি পাশাপাশি জানিয়েছেন, এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ভারতের অগ্রাধিকারের তালিকায় রয়েছে।

অর্থাৎ ভারত যদি ভ্যাকসিন রফতানি করে, তবে তা প্রথমেই পাবে বাংলাদেশ। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যেও ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্বকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই হর্ষবর্ধন শ্রিংলার এই সফরের মূল উদ্দেশ্য। তিনি জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির কোনও প্রভাব যেন দুই দেশের বন্ধুত্বে না পড়ে সেটাই এর লক্ষ্য। অন্যদিকে মাসুদ বিন মোমেন জানিয়েছেন, যেকোনও সাহায্য, বিশেষত ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের ক্ষেত্রে হাত বাড়িয়ে দিতে তাঁরা প্রস্তুত।

Reply