এবার লিপুলেখে সেনা বাড়াচ্ছে চিন, চলছে ক্ষে-প-না-স্ত্র বসানোর প্রস্তুতি! নজর রাখছে ভারত

লিপুলেখ এমন একটি এলাকা, যেখানে ভারত, নেপাল এবং চিন- এই তিন দেশেরই সীমানা রয়েছে৷ লিপুলেখ এলাকা নিয়ে ভারতের সঙ্গে নেপালের বিবাদ চলছেই৷ নতুন বিতর্কিত মানচিত্রে কালাপানি এবং লিম্পুয়াধুরার সঙ্গে উত্তরাখণ্ডের লিপুলেখকেও নিজেদের এলাকা বলে দাবি করেছে নেপাল৷ এবার সেই লিপুলেখেও ধীরে ধীরে নিজেদের বাহিনীর সংখ্যা বাড়াচ্ছে চিন৷

ওপেন সো’র্স ই’ন্টে’লি’জে’ন্স detresfa উপগ্রহ চিত্র প্রকাশ করে দাবি করেছে, লিপুলেখের ট্রাই জংশন এলাকায় সে’না মোতায়েন করার পাশাপাশি ক্ষে-প-না-স্ত্র বসানোর জন্য নির্মাণকাজ শুরু করেছে চিন৷

শুধু বাহিনী মোতায়েন করাই নয়, চিন লিপুলেখে মি-সা-ই-ল বসানোর প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছে বলে বেশ কয়েকটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে৷

ওপেন সো’র্স ই’ন্টে’লি’জে’ন্স detresfa উপগ্রহ চিত্র প্রকাশ করে দাবি করেছে, লিপুলেখের ট্রাই জংশন এলাকায় সেনা মোতায়েন করার পাশাপাশি ক্ষে-প-না-স্ত্র বসানোর জন্য নির্মাণকাজ শুরু করেছে চিন৷

লিপুলেখ এমন একটি এলাকা, যেখানে ভারত, নেপাল এবং চিন- এই তিন দেশেরই সীমানা রয়েছে৷ মে মাস থেকেই এখানে পরিকাঠামো নির্মাণের কাজ শুরু করেছিল চিন৷ গত কয়েক সপ্তাহে ধীরে ধীরে সেখানে সে’না মোতায়েন বাড়িয়েছে চিন৷ ইতিমধ্যেই সেখানে এক ব্যাটেলিয়ন বা ১ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে চিন ।

এই লিপুলেখ পাসেই মানস সরোবর যাত্রার জন্য নতুন রুট তৈরি করছে ভারত৷ এই এলাকাতেই ভারতের তৈরি ৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ নতুন রাস্তা নিয়ে আপত্তি জানায় নেপাল৷ তার পরেই লিপুলেখ, লিম্পুয়াধুরা এবং কালাপানিকে নিজেদের এলাকা বলে দাবি করে মানচিত্র প্রকাশ করে নেপাল৷

Reply