কোটি কোটি যুবক-যুবতীর জীবনে আশীর্বাদ হয়ে উঠবে ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি, ট্যুইট প্রধানমন্ত্রীর

কেন্দ্রীয় সরকারের চাকরির পদে যোগ্য প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি (এনআরএ) গঠনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে প্রশংসা করলেন নরেন্দ্র মোদি। এটি হবে এক মাল্টি-এজেন্সি সংস্থা যারা সঠিক প্রার্থী বাছাইয়ে কমন এলিজিবিলিটি টেস্ট (সিইটি) বা পরীক্ষা পরিচালনা করবে। ওই এজেন্সি তৈরির জন্য কেন্দ্র ১৫১৭.৫৭ কোটি টাকা মঞ্জুর করেছে। তিন বছর ধরে এই অর্থ খরচ করা হবে। এনআরএ গঠন তো করবেই, পাশাপাশি প্রায় ১১৭টি জেলায় সঠিক পরীক্ষা আয়োজনের পরিকাঠামো তৈরির জন্যও খরচ করবে সরকার।


এই প্রেক্ষাপটেই প্রধানমন্ত্রী ট্যুইট করেছেন, কোটি কোটি যুবক-যুবতীর জীবনে আশীর্বাদ হয়ে উঠবে ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি। কমন এলিজিবিলিটি টেস্টের মাধ্যমে বারবার একাধিক পরীক্ষার ব্যবস্থার অবসান হবে, অমূল্য সম্পদ ও সময় বাঁচবে। এতে স্বচ্ছতাও জোরদার হবে।

পর্যবেক্ষক মহলের অভিমত, এতে উপকৃত হবেন গ্রামীণ এলাকার বিপুল সংখ্যক চাকরিপ্রত্যাশী যারা প্রতি বছর কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরির জন্য চেষ্টা করেন। সিইটি হবে একাধিক ভাষায় এবং এতে দেশের বিভিন্ন এলাকার চাকরিপ্রার্থীদের পরীক্ষায় বসতে সুবিধা হবে, সকলে সমান সুযোগ পাবেন। একটিমাত্র যোগ্যতা নির্নায়ক পরীক্ষার ব্যবস্থার ফলে নিয়োগ প্রক্রিয়ার বহরও কমবে।

কয়েকটি সরকারি দপ্তর ইতিমধ্যেই যে কোনও ধরনের দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা ব্যবস্থা তুলে দিয়ে সিইটি-তে প্রাপ্ত নম্বর, শারীরিক সক্ষমতা পরীক্ষা ও মেডিকেল পরীক্ষার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাতে চায় বলে ইঙ্গিত দিয়েছে।
বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে রয়েছে ২০টির বেশি রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি।

Reply