ক’রো’না স্বাস্থ্য বিধিকে উড়িয়ে দিয়ে উহানে কয়েক হাজার চিনা নাগরিক ওয়াটার পার্টিতে মাতলেন, মাস্ক নেই, নেই নিরাপদ দূরত্ব

রীতিমত অবাক করা কাণ্ড ঘটে গেলে চিনের উহানে। বিশ্বে ক’রো’না ভাইরাসের সং’ক্র’ম’ণের মধ্যেই কয়েক হাজার চিনা নাগরিক ওয়াটার পার্টিতে মাতলেন। কিন্তু তাঁরা কেউই মাস্ক পরেননি। আর ভিড় এতটাই ছিল যেখানে নিরাপদ শারীরিক দীরত্ব বজায় রাখা একেবারেই অসম্ভব ছিল। যা নিয়ে রীতিমত আ’শ’ঙ্ক প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

৭৬ দিন বন্ধ থাকার উহানের মায়া বিচ ওয়াটার পার্কটি খোলা হয়। আর সেখানেই আয়োজন করা হয় ওয়াটার পার্টির। আর সেই উপলক্ষ্য পুরোপুরি ভর্তি ছিল। স্যুইমিং শ্যুট পরে বহু মানুষ উপস্থিত ছিলেন। কিছু মানুষ সরাসরি জলেও দাঁড়িয়ে ছিলেন। আবার গগলেরও ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু অত্যাধিক ভিড়ের কারণে একেকটি গগল দুই থেকে তিন জন ভাগ করে নিয়েছিলেন। দু’র্ঘ’টনা এড়াতে অনেককেই লাইফ জ্যাকেট দেওয়া হয়েছিল। আর ওই অনুষ্ঠানে যে মিউজিক পার্টি অংশ নিয়েছিল তাঁরাও ক’রো’না সং’ক্রা’ন্ত স্বাস্থ্য বিধিকে রীতিমত বুড়ো আঙুল দেখিয়েছিল।

ওয়াটার পার্টিতে অংশ নেওয়া মানুষজন মহামারি নিয়ে রীতিমত উদাসীন ছিলেন বলা যেতেই পারে। ফেসমাস্ক আর নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনও ব্যবস্থা সেখানে করা হয়নি। তবে স্থানীয় প্রশাসন জানাচ্ছে পার্কটি সাধারণ ক্ষমতার তুলনায় মাত্র ৫০ শতাংশ উপস্থিতি সীমাবদ্ধ রেখেছিল। আর মহিলাদের ক্ষেত্র বিশেষ আর্থিক ছাড় দেওয়া হয়েছিল। এটি ছিল সপ্তাহ শেষের পার্টি।

চিনে এই উহান শহরেই প্রথম ক’রো’না ভাইরাসে আ’ক্রা’ন্তে’র সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। সেখান থেকেই গোটা বিশ্ব ছড়িয়ে পড়ে ম’রা’মা’রির আকার ধারন করে ক’রো’না ভাইরাস। বর্তমান বিশ্বের প্রায় সবকটি দেশেই ক’রো’না ভাইরাসের আ’ক্রা’ন্ত। ক’রো’না ভাইরাসের সং’ক্র’ম’ণ রুখতে রীতিমত কঠোরভাবেই উহানে লকডাউন জারি করা হয়েছিল।

গত এপ্রিল মাস থেকেই ধীরে ধীরে শিথিব করা হয়েছে বিধিনিষেধ। মে মাসের মাঝামাঝি থেকে হুবেই প্রদেশে নতুন করে কোনও আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া যায়নি। এই অবস্থায় ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা করছে চিন। কিন্তু তারপই মধ্যে এই ওয়াটার পার্টি ঘিরে আবারও তারি হয়েছে বি’ত’র্ক। কারণে এখন থেকে যে নতুন করে সং’ক্র’ম’ণ ছড়িয়ে পড়বে না তা কে বলতে পারে।

Reply