পাক পতাকায় জড়ানো বুক, তেরঙার উপর দাঁড়িয়ে বন্দুক তাক করে তীব্র অশ্রদ্ধা ভারতীয়র…

পরনে তাঁর পাকিস্তানের পতাকা। কিন্তু ভারতের পতাকার উপর ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে এক ব্যক্তি। আর সেই ব্যক্তি খোদ ভারতীয়। হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়েছে এমনই এক ছবি। নেটদুনিয়ায় ব্যাপক বিতর্ক ভাইরাল এই ছবিটি নিয়ে।

Times Fact Check-এর এক পাঠক এই ছবির সত্যতা যাচাইয়ে হোয়াটসঅ্যাপ করেছিলেন। ছবিটি সত্যি নাকি ডক্টরড এই ছিল তাঁর প্রশ্ন।

সত্যতা যাচাইয়ে পাঠকের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা তামিলে টেক্সট লিখে ওই পাঠক ছবিটি জনমানসে ছড়িয়ে দিতে বলে দাবি করছেন, যাতে দেশের পতাকাকে অসম্মান করার জন্য ওই ভারতীয়কে গ্রেফতার করা হয়।

সত্য-তথ্য: ছবিটি সত্যিই। ২০১৮ সালে ছবিটি বিহারের সিবানে তোলা হয়েছিল। পায়ে করে তেরঙাকে অসম্মান করার দায়ে তায়াব হুসেইনের পুত্র সাজিদ হুসেইনকে গ্রেফতারও করা হয়েছিল সে বছর।

তথ্য অনুসন্ধান পদ্ধতি: পাতি রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতিতে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে গেলে আমরা ৩০ অগস্টের একটি পোস্ট দেখতে পাব। সেই পোস্টটি আদতে হিন্দি খবরের ওয়েবসাইট সিবান নিউজ অনলাইন থেকে প্রকাশ করা হয়েছিল।

সেই রিপোর্টেও এই এক ছবিই ছিল। বিহারের সিবান জেলার পাছরুখি থানার শেইখপাত্তি গ্রামের বাসিন্দা মহম্মদ সাজিদ হুসেইন ঠিক এমন ন্যক্কারজনক ভাবেই মর্যাদাহানি করেছিল ভারতের জাতীয় পতাকার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবিটিই ভাইরাল হওয়ার পর বেশ কিছু মানুষ রিপোর্ট করেছিলেন। পরনে পাকিস্তানের পতাকা আর হাতে বন্দুক তাক করে রয়েছে ভারতের পতাকার দিকে। এরপরই সিবান পুলিশ গ্রেফতার করে ওই ব্যক্তিকে। মামারবাড়ি থেকে পুলিশ হাতেনাতে পাকড়াও করেছিল মহম্মদ সাজিদ হুসেইনকে।

পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে এই সময় সত্য-তথ্য ডেস্ক এই সিদ্ধান্তে পৌঁছল যে, পাকিস্তানের পতাকা পরে সত্যিই এই ভারতীয় তেরঙাকে অসম্মান প্রদর্শন করেছে। ২০১৮ সালের এই ঘটনায় গ্রেফতারও করা হয় কালপ্রিট সাজিদ হুসেইনকে।

Reply