প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরিতে ৭৪ শতাংশ FDI, ঘোষনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আত্মনির্ভর ভারত গঠনের দিকেই বেশি ঝুঁকছে কেন্দ্রীয় সরকার। দেশীয় প্রযুক্তিতে যাতে ভারতবর্ষে যে কোন জিনিসের উৎপাদন সবচেয়ে বেশি হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখ আছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিশেষত প্রতিরক্ষা খাতে নজর দিয়েছেন তিনি।

এবার প্রধানমন্ত্রী সকল ভারতবাসীর জন্য এক অভিনব বার্তা নিয়ে এলেন। এবার তিনি জানালেন,প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে এখন থেকে বিদেশী বিনিয়োগ সরাসরি করে দেওয়া হল ৭৪%। বৃহস্পতিবারের এক ওয়েবিনারে যোগদান করে তিনি কথা জানিয়েছেন। সেই ওয়েবিনারে যোগদান করেছিলেন রাজনাথ সিং।

স্বাধীনতার পর এই প্রথম ভারতবর্ষের মাটিতে সামরিক সরঞ্জাম তৈরি করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হচ্ছে। গত ১০০ বছরে এই বিষয়ে কেউ কোনো ভাবনা চিন্তায় করেনি। সরকার প্রথম আত্মনির্ভর প্রকল্পের হাত ধরে, দেশীয় প্রযুক্তিতে সামরিক সরঞ্জাম তৈরীতে ব্রতী হয়েছেন। লক্ষ্য একটাই দেশের মাটিতে যে কোন জিনিসের উৎপাদন তুলনামূলকভাবে বাড়িয়ে তুলতে হবে।

বৃহস্পতিবারের ওয়েবিনারে উন্নয়নের বার্তা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নতুন শ্রমিক আইনের কথা তুলে ধরে সেই পথে উন্নয়ন করার রাস্তা খুঁজে প্রয়োজন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। এই রাস্তার দিকে লক্ষ্য রেখেই দেশীয় প্রযুক্তিতে দেশের মাটিতেই তৈরি হবে সামরিক সরঞ্জাম। নতুন প্রতিরক্ষা খাতে এর ফলাফল দারুন হতে পারে।

ক’রো’না আবহে লকডাউনে জনজীবন স্তব্ধ হয়ে যাওয়ার পর এই ২০০ কোটি টাকার অর্থনৈতিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের মাটিতে সামরিক সরঞ্জাম তৈরির পরিকল্পনা গড়ে তোলার পাশাপাশি প্রতিরক্ষা খাতে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের অঙ্ক বাড়ানো।

আগেও প্রতিরক্ষায় FDIয়ের অনুমোদন দিয়েছিল মোদি সরকার। এবার তার পরিমাণ কিছুটা বাড়ালেন তিনি। প্রতিরক্ষার বিভিন্ন সরঞ্জাম তৈরিতে এবার ৭৪ শতাংশ FDIএর পথ প্রশস্ত করা হল। প্রধানমন্ত্রী বললেন, ”ভারতে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরির কাজ আরও বাড়িয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দেওয়া আমাদের লক্ষ্য”।

দেশে প্রতিরক্ষার গুরুত্ব বুঝে আত্মনির্ভর হওয়া টা কতটা জরুরি এ দিন তা বর্ণনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন,”ম’হামা’রীর এই কঠিন সময়ের সঙ্গে ল’ড়া’ই করতে অনেক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, যার সুফল মিলবেই। সেইসঙ্গে বিশ্বের দরবারেও প্রতিফলিত হবে নতুন ভারতের ছবি। যা দেখে অন্যরা অনুপ্রেরণা পাবেন। বুঝতে পারবেন, ভারত কীভাবে ল”ড়াই করছে প্রতিটি ক্ষেত্রে।”

তথ্যসূত্র : aajsakal

Reply