অনলাইন ক্লাস এর জন্য ছাত্র ছাত্রীদের নিজেদের মাইনার টাকা থেকে মোবাইল কিনে দিলেন তামিলনাড়ুর শিক্ষক শিক্ষিকারা

করো’না আবহে স্কুল-কলেজ বন্ধ।ছাত্র-ছাত্রীদের মূলত অনলাইন ক্লাস এর মাধ্যমে পড়াশোনা করার দিকে জোর দিয়েছেন স্কুল-কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকারা। এখনো পর্যন্ত আর্থিক সঙ্গতি নেই এমন মানুষ রয়েছেন সমাজে। তারা সাধারণত প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত কম্পিউটার ল্যাপটপের ওপর ভিত্তি করেই ওয়ার্ক ফ্রম হোম করতে অভ্যস্ত। অনলাইন ক্লাস করতে একটি ল্যাপটপ কিংবা মোবাইলফোনের প্রয়োজন হয়। কিন্তু বিভিন্ন স্তরে ছাত্র ছাত্রীদের মোবাইলফোন কিংবা ল্যাপটপের সুবিধা না থাকার জন্য অনলাইন ক্লাস থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এই কথা বিবেচনা করে ছাত্রছাত্রীদের সাহায্যে এগিয়ে এলেন প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের এই শিক্ষকরা তাদের শিক্ষার্থীদের জন্য স্বর্গদূতদের চেয়ে কম নন। কারণ ছাত্রছাত্রীরা যাতে সঠিক সময় অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারে তার ব্যবস্থা করেছিলেন এই শিক্ষক-শিক্ষিকারা। থিয়াগরাজ সরকারী অনুদিত বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা নিজের বেতন থেকে অর্থ একত্রিত করে ছাত্র-ছাত্রীদের একটি করে মোবাইল ফোন কিনে দিয়েছেন। কারণ দুঃস্থ ছাত্র-ছাত্রীদের মোবাইল কেনার মত ক্ষমতা ছিল না।

স্কুল বন্ধ থাকার কারণে এবং মোবাইল ফোন না থাকার কারণে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস মিস করার একটা সম্ভাবনা থেকেই যায়। সম্পদের অপ্রতুলতার কারণেই হোক বা আর্থিক দিক থেকে বেশ কিছু ছাত্র ছাত্রী পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর মধ্যেই রয়ে গিয়েছিল। এই কঠিন সময়ের মধ্যে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকারা তাদের ছাত্র-ছাত্রীদের কথা ভেবে পাশে দাঁড়ালেন।

দিনের-পর-দিন ক’রোণা সং’ক্রমণ বিস্তার লাভ করছে। ভ্যাক’সিন আবিষ্কৃত না হওয়ার কারণে সাধারণ মানুষ আজ বিপর্যয়ের মুখে। এই পরিস্থিতিতে ছাত্রছাত্রীরা যাতে কোনোভাবেই শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত না হয় তার উদ্যোগ গ্রহণ করলেন তামিলনাড়ুর শিক্ষক শিক্ষিকারা। এটি শুধুই সংবাদ নয়। সারা দেশবাসীর কাছে এক অমূল্য বার্তা। শিক্ষাগুরুরা নিজেদের ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনা থেকে ব’ঞ্চিত হতে দেননি।

তথ্যসূত্র : khoborerpatay

Reply