গোটা দেশে ‘এক দেশ, এক ভোটার তালিকা’ নিয়ম চালু হতে চলেছে, কারচুপি রুখতে নয়া পদক্ষেপ কেন্দ্রের

গোটা দেশকে এক সূত্রে বাধার সংকল্প শুরু থেকেই নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী(PM Narendra Modi) সেইজন্যে বিভিন্ন প্রকল্প নেওয়া হয়েছে যেখানে দেশে একতা বজায় থাকবে। এবার এক দেশ এক ভোটার তালিকা (One Country One Voter List) প্রকল্প নিয়ে আলাপ-আলোচনা শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । এর ফলে বিভিন্ন ভোটে কারচুপি অনেক কমবে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

সম্প্রতি নিজের কার্যালয়ে হওয়া বৈঠকে উনি সাধারণ ভোটার তালিকা (Voter List) তৈরি করা নিয়ে চর্চা করেন। এই ভোটার তালিকা স্থানীয় নির্বাচন থেকে লোকসভা বিধানসভা নির্বাচনের ব্যবহার হবে বলে পরিকল্পনা করা হচ্ছে সরকারের তরফ থেকে সাধারণ ভোটার তালিকা সহ একসঙ্গে নির্বাচন করে বিপুল খরচ কমানোর কথা চিন্তা করা হচ্ছে পরবর্তীকালে ক্ষেত্রে আইনি নিয়ম বদলানো হতে পারে ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রধান সচিব পিকে মিশ্রার(PK Mishra) নেতৃত্বে ১৩ ই আগস্ট হওয়া বৈঠকে দুটি বিষয় নিয়ে চর্চা করা হয় একটি হলো সংবিধানের দুটি অনুচ্ছেদ দুটি অনুচ্ছেদ ২৪৩কে আর ২৪৩জেড এ তে বদল এনে দেশের সমস্ত প্রকার নির্বাচনের জন্য একটি ভোটার তালিকা ব্যবহার করা। এবং দ্বিতীয়টি হলো রাজ্য সরকারকে এই সংক্রান্ত আইন বদলানোর জন্য প্রয়োজনীয় আইনি নির্দেশ পাঠানো যাতে পঞ্চায়েত ও পৌরসভা নির্বাচনের সময় এই অভিন্ন ভোটার তালিকা রাজ্যগুলি তরফ থেকে ব্যবহার করা হয়। এই বৈঠকে ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গোম্বা ছাড়া বিধান সচিব জি নারায়ণ রাজু, পঞ্চায়েত রজা সচিব সুনীল কুমার আর নির্বাচন কমিশনের তিনজনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

সংবিধানের অনুচ্ছেদ ২৪৩কে আর ২৪৩জেডএ রাজ্যগুলোর স্থানীয় পুরসভা আর পঞ্চায়েত ভোটের জন্য কার্যকর। এই আইন অনুসারে রাজ্যগুলি আলাদা আলাদা ভাবে বিভিন্ন ভোটের জন্য ভোটার তালিকা তৈরি করতে পারে। সেই সঙ্গে নিজেদের মতো নির্বাচন সম্পন্ন করতে পারে আবার অন্যদিকে সংবিধানের ৩২৪(১) ধারায় কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনকে সংসদ আর বিধানসভার সমস্ত নির্বাচনে ভোটার লিস্ট তৈরি করার নিয়ন্ত্রণ করার অধিকার দেওয়া হয়েছে। তাই স্থানীয় নির্বাচনের জন্য রাজ্য সরকারকে কখনো কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের কোনো অনুমতি নিতে হয় না। পিকে মিশ্রা ক্যাবিনেট সচিবকে রাজ্য গুলোর সাথে কথা বলে আগামী এক মাসের মধ্যে আগামী পদক্ষেপ নিয়ে পরামর্শ দেওয়ার কথা বলেছেন।

তথ্যসূত্র : khabor24x7

Reply