সুশান্ত স্বপ্নে এসে বলল আমায় মিডিয়ার সামনে যেতে তাই এসেছি”: রিয়া চক্রবর্তী

খানিকক্ষণ আগেই জানা গিয়েছে পাটনা থেকে আসা চিঠি তার ফ্ল্যাটে পৌঁছালেও তিনি গ্রহণ করেননি’ কারণ তিনি নাকি বেপাত্তা! যদিও ইন্ডিয়া টুডে (India Today) তে আজ সম্প্রচারিত হতে চলেছে রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty) ‘বনাম’ রাজদীপ সরদেশাইয়ের (Rajdeep Sardesai) এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার (Exclusive Interview) যেখানে উঠে আসছে অনেক অজানা তথ্য!

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে (India Today) রিয়াকে রীতিমতো কড়া ভাষায় আ’ ক্র’ মণ করেছে এবং রিয়াও সেগুলো দক্ষ হাতেই সামলেছেন বলা যায়! ইতিমধ্যেই সেই অনুষ্ঠানের কিছু ঝলক সামনে এসেছে। যেখানে রিয়াকে বলতে শোনা যাচ্ছে, “আমি আর সুশান্ত কাপলের মত ছিলাম, সেখানে সুশান্ত আমার পিছনে টাকা খরচা করেছে বেশ করেছে তাতে আপনাদের তো বলার কিছু থাকতে পারে না!”

রাজদীপ সরদেশাই (Rajdeep Sardesai) তাকে ইউরোপ টুর (Europe Tour) নিয়ে প্রশ্ন করেন, সেখানে রিয়া উত্তর দেন সুশান্ত মডাফিনিল নামে একটি ওষুধ অনেকদিন আগে থেকেই নিতেন। কারণ সুশান্ত সিং রাজপুতের নাকি ফ্লাইটে ওড়া নিয়ে কিছু ফোবিয়া ছিল। শীইন নামে যে চাইনিজ জামাকাপড়ের ব্র্যান্ডকে ভারত থেকে ব্যান করা হয়েছে গত বছর সেই ব্র্যান্ডের হয়ে রিয়ার প্যারিসে একটি ফ্যাশন শুটের কথা ছিল, রিয়াকে সেই ব্র্যান্ড এর তরফ থেকে হোটেল বুকিং এবং টিকিট কেটে দেয়া হলেও সুশান্ত সেগুলি ক্যানসেল করে পুরো ব্যাপারটিকে একটি ইউরোপ টুর (Europe Tour) হিসেবে সাজান যার ভেতরে ছিল সুইজারল্যান্ড এবং ইটালী ভ্রমণ। প্রথমে তারা প্যারিসে যান সেখানে সুশান্তের বেশ কিছু অস্বাভাবিক ব্যবহার রিয়ার চোখে পড়ে যান নাকি তিনদিন ঘর থেকে সেরকম বের হননি। এরপর সুইজারল্যান্ডে সবকিছু ঠিকঠাক ছিল কিন্তু তারপর ইতালিতে যখন একটি হোটেলে যান সেই হোটেলের সাজসজ্জা ছিল গথিক আমলের। যা দেখে সুশান্ত এবং রিয়া দু’জনেরই অস্বস্তিবোধ হয় এবং পরে সেই ব্যাপার বাড়তে থাকায় রিয়া যখন সুশান্ত কে জিজ্ঞাসা করেন সমস্যা কোথায়, তখন সুশান্ত জানান যে ২০১৩ সালে তার একটি ডিপ্রেসিভ সময় এসেছিল সেই সময়ের সম্ভবত হরিশ শেঠি বলে কোন সাইক্রিয়াটিস্ট এর অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন সুশান্ত। তিনি সুশান্তকে মডাফিনিল ওষুধ খেতে বলেন।

এরপরে যখন রাজদীপ সরদেশাই (Rajdeep Sardesai) প্রশ্ন করেন যে রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কেন এই ট্রিপে জয়েন করেছিলেন যেখানে একজন কাপল যাচ্ছে? উত্তর রিয়া বলেন, সুশান্ত জোর করে ছিল আমার ভাইকে আসতে। তার প্রমাণ আমার কাছে আছে। আমার ভাইয়ের সুশান্তের মধ্যে এত ভালো সম্পর্ক ছিল আমি অনেক সময় বলতাম আমার ভাই আমার সতীন। এছাড়াও সুশান্ত যে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর ব্যবস্থা করলে তার নামও আমার নাম অনুসারে দেয় রিয়ালিটিক্স, যেখানে আমাদের তিনজনকে ৩৩ হাজার টাকা করে দিতে হয়। এখানে তিনজন মানে সুশান্ত সিং রাজপুত(Sushant Singh Rajput), রিয়া চক্রবর্তী(Rhea Chakraborty) এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে বুঝিয়েছেন রিয়া। আমার ভাই সেই সময় কোন চাকরি করতো না তাই আমার অ্যাকাউন্ট থেকে আমি ভাইকে ৩৩ হাজার টাকা দিয়েছিলাম। ইউরোপ টুর (Europe Tour) এর সময় আমার ভাইয়ের ক্যাট পরীক্ষা ছিল তারপরে সে সুশান্তের অনুরোধেই আমাদের ট্রিপে যোগ দেয়।

এরপরেই রিয়ার বিস্ফোরক মন্তব্য, “সুশান্তের টাকায় আমি কখনও চলতাম না। সুশান্তের আগেও থাইল্যান্ডে ৬ জন ছেলে বন্ধুকে নিয়ে গেছিল যেখানে সে ৭০ লক্ষ টাকা খরচা করেছিল। কই তখন তো কেউ কিছু বলল না? আমিও সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput) কাপল ছিলাম সেখানে সুশান্ত যদি খরচা করে তাতে অসুবিধাটা কোথায়? সুশান্ত রাজার মত বাঁচতে ভালবাসত। যদিও আপনারা প্রমাণ করবেন অন্য কথাই, কিন্তু আমার কাছে সমস্ত চ্যাট রয়েছে।

তথ্যসূত্র : khabor24x7

Reply