১৫ থেকে ২০ টা সূচ ফোটানোর দাগ ছিল সুশান্তের গলায় পা ও ভাঙ্গা ছিল, জানালেন হাসপাতাল কর্মী

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলার প্রতিদিন নিত্যনতুন খবর আপনাদের চোখের সামনে প্রকাশিত হচ্ছে সম্প্রতি একটি নিউজ চ্যানেলে, এমন এক ব্যক্তির সাথে কথা হয়েছে যে সুশান্তের ব’ডি অ্যা’ম্বুলেন্সে তোলা থেকে শুরু করে হাসপাতালে পৌঁছানো এবং হাসপাতাল থেকে শ্মশানে পৌঁছানো সমস্ত কাজকর্ম করেছিলেন, সেই প্রত্যক্ষদর্শী নিজেই নিউজ চ্যানেলে এসে তার সমস্ত অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করলেন তিনি বললেন যে এটি কোনোভাবেই সুই’ সাই’ ড নয় যেভাবে সুশান্তের দেহ ক্ষ’ তবি’ ক্ষ ত হয়েছিল তাতে মনে হচ্ছিল এটা মা’ র্ডা’ র ছাড়া আর কিছু নয়,

কারণ তাদের কাজই এই ডে’ড বডি নিয়ে তারা সব সময় নাড়া ঘাটা করে হাসপাতলে সমস্ত কাজকর্ম তাদেরকে সামলাতে হয়

রিয়া চক্রবর্তী যখন ম’ র্গে গিয়ে ছিল তখন তার চোখের সামনে দিয়া সুশান্তের বুকে হাত দিয়ে বলেছিল ডিয়ার আমি দুঃখিত আমাকে ক্ষমা করো রিয়া 25 মিনিটের জন্য ভিতরে ছিল সন্ধ্যা 5 টা থেকে সুশান্তের বডি অন্তোষ্টিক্রিয়া জন্য ওই ব্যক্তি সঙ্গী ছিল

তিনি বলেন সুশান্তের বডি তে গলার কাছে প্রায় পনেরো থেকে কুড়ি টি সূচ ফোটানোর দাগছিল, সবচেয়ে বড় কথা তার পা ভা’ঙ্গা ছিল,

তিনি আরো জানান এইটা কোন ভাবেই সু’ ইসা’ ইড নয় কারণ গলায় ফাঁ’ স লাগিয়ে সুই’ সাই’ ডের বডি অনেকটা হলদে ফিকে হয়ে যায়, আর সুশান্তের বডি অনেকটা সাদা টাইপের ছিল, তার কানে এসেছে যে ডাক্তাররা তাকে পো’ স্টমর্টে’ ম করছিল তারা নিজেদের মধ্যে বলাবলি করছিল যেটা কোনোভাবেই আ’ ত্মহ’ ত্যা নয়

সেই প্রত্যক্ষদর্শী পুরোপুরি নিজেকে হাইড করে তার বিবৃতি দেন এ কে জানো সে কোনভাবেই পরবর্তীকালে হ্যারাসমেন্ট না হয় তাই নিজের সেফটির জন্য কখনো মুখ দেখায় নি এবং দেখাতে সাহস পায়নি তিনি জানান এ সমস্ত কিছু ব্যাপার এর ওপর মুম্বাই পু’ লিশ কিভাবে চাপে আছে

তথ্যসূত্র : khoborerpatay

Reply