শত্রুকে মুখের উপর জবাব দিয়ে এবার দক্ষিণ চিন সাগরে ভারতীয় যুদ্ধ জাহাজ

লাদাখে চিনের সৈন্যকে যথাযথ জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা। ২০ জন শ’ হি’ দ হওয়ার পর ছেড়ে কথা বলেনি ভারত। চিনকে ভাতে মা’ রার সবরকম পরিকল্পনা করেছে। তবে এবার আরও সাহস নিয়ে ভারতীয় নৌসেনা পৌঁছে গেল দক্ষিন চিন সাগরে।

২০০৯ সাল থেকে এই দক্ষিণ চিন সাগরে দ্রুত প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করছে চিন। দুনিয়া সবচেয়ে ব্যাস্ত এই সমুদ্রপথে চিনের প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা নিয়ে আত’ ঙ্কে রয়েছে খাস আমেরিকাও। ইতিমধ্যেই এই অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় কৃত্রিম দ্বীপ তৈরি করেছে বেজিং। পাশাপাশি রয়েছে অনেক মিলিটারি সরঞ্জামও।

জানা যাচ্ছে, গত ১৫ জুন গালওয়ানে ২০ জওয়ান শ’ হিদ হওয়ার পর দক্ষিণ চিন সাগরে একটি শক্তিশালী রণত’ রী মোতায়েন করেছে ভারত। ওই অঞ্চলে ভারত-সহ অন্যান্য দেশের উপস্থিতি নিয়ে বরাবরই আপত্তি করে আসছে চিন। ভারত-চিন বৈঠকেও এই বিষয়ে আভিযোগ জানিয়েছে চিন। তাই শ’ ত্রু’ পক্ষ’ কে মুখের উপর জবাব দিয়েই যু’ দ্ধ জাহাজ পাঠিয়েছে ভারত।

এই দক্ষিণ চিন সাগরে ইতিমধ্যেই রণতরী মোতায়েন করেছে আমেরিকা। এবার ভারত সেই তালিকায় যুক্ত হওয়ায় চাপে পড়ে গেল চিন। গোটা বিষয়টি অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গেই করেছে ভারত। সেখানে প্রতিনিয়ত মার্কিন নেভির সঙ্গে যোগাযোগও রাখছে নৌবাহিনী।

এদিকে কয়েকদিন আগেই পরপর দুটি মি’ সা’ ইল ছোঁড়ে চিন। যার মধ্যে একটি কেরিয়ার কিলার মি’ সাই’ ল বলে জানা গিয়েছে।

সামরিক বিশেষজ্ঞদেরদাবি আমেরিকাকে আ’ ক্রা’ মণ করার জন্যই এই মি’ সা’ ইল তৈরি করেছে চিন। বৃহস্পতিবার এই খবর প্রকাশ্যে এসেছে। বুধবারই তারা পরীক্ষামূলকভাবে ওই মি’ সা’ ই ‘ল ছোঁড়ে।

DF-26B ও DF-21D ফা’ য়া’ র করা হয়েছে। হাইনান প্রদেশের সাদার্ন আইল্যান্ড ও প্যারাসেল আইল্যান্ডের মধ্যে গিয়ে পড়েছে ওই মি’ সা’ ইল। এমনটাই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে চিনের সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।

চিনের একাধিক কাজকর্ম ভিয়েতনামকেও বেশ চিন্তার মধ্যে রেখেছে। চিন ভিয়েতনাম সংলগ্ন দক্ষিণ চিন সাগরে মোতায়েন করেছে এ নিয়ে চিন্তিত হয়ে নিজের সমস্যার কথা ভারতকে জানিয়েছে ভিয়েতনাম। ভারতে ভিয়েতনামের রাষ্ট্রদূত ফেম সান চৌ এক বৈঠকে ভারতীয় বিদেশ সচিব হর্ষ শ্রিংলাকে এ কথা জানিয়েছেন।

Reply