করোনার ভ্যাকসিন নিলে হারাম হবে! মুসলিম সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে এই মৌলানার নির্দেশে ছড়াল বিতর্ক

করোনার ভ্যাকসিন নিলে হারাম হবে! মুসলিম সম্প্রদায়ের এক মৌলানা সুফয়ান খালিফার (Moulana Sufyan Khalifa) ভিডিও বার্তায় এবার ছড়ালো বিতর্ক! গোটা বিশ্ব যেখানে এই মা’ র’ ণ ভাইরাসের প্রতিষেধক এর জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে সেখানে এক মৌলানা কিভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে(Muslim Community) এরকম নির্দেশ দিতে পারেন সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

করোনার ভ্যাকসিনের (Corona Vaccine) জন্য রীতিমতো হাপিত্যেশ করছে গোটা বিশ্ব। বিশ্বজুড়ে মড়ক লাগিয়েছে এই ভাইরাস। অর্থনীতি থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যব্যবস্থা সবকিছুই প্রায় ভেঙে পড়েছে। এর মধ্যেই করোনা প্রতিষেধকের এর মধ্যে ধর্ম খুঁজে পেলেন এই মৌলানা। এছাড়া যে সমস্ত মুসলিম সংগঠন করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক এর স্বপক্ষে নিজেদের মত জারি করেছেন তাদের উপরেও চিন্তা জাহির করা হয়েছে। এই ইমাম বসবাস করেন অস্ট্রেলিয়ার পার্থে। এদিকে অস্ট্রেলিয়ার সরকার অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের (Oxford Corona Vaccine) সাপ্লাইয়ের জন্য চুক্তি করেছে।

নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ইমাম ভিডিও বার্তাটি পোস্ট করে নিজের ভক্তদের আবেদন করেছেন যে, তার ভক্তরা যেন ফ্যাসিস্টদের বিরোধিতা করে এবং এই ভ্যাকসিন যেন না গ্রহণ করে।ক্যাথোলিক ইসাইও এই ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে আছে, কারণ এটি হারাম। অবৈধ। তিনি দাবি করেন, এর আগে অস্ট্রেলিয়ার এক ইসাই ধর্মগুরুও অক্সফোর্ডের এই করোনা ভ্যাকসিনের বিরোধিতা করেছিল।

যে সমস্ত মুসলিম সংগঠন এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে রাজি হয়েছে তাদেরকে ধিক্কারও জানিয়েছেন এই ইমাম। এছাড়াও জানা গিয়েছে যে আরও কয়েকজন ধর্মীয় নেতা অক্সফোর্ডের এই ভ্যাকসিন এর বিরোধিতা করেছে কারণ এই ভ্যাকসিন নাকি গর্ভপাত করার শিশুদের সেল দিয়ে তৈরি হচ্ছে।

যদিও মুসলিম সমেত অনেক ধর্মের নেতারাই এই ভ্যাকসিনের সমর্থন করেছে। অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল ইমাম কাউন্সিলের (Australia National Imam Council) মুখপাত্র বিলাল রাউফ বলে, “যদি ইসলামের সিদ্ধান্তই দেখতে হয় তাহলে আমাদের সর্বপ্রথম সিদ্ধান্ত হল প্রাণ বাঁচানো। সেই কারণে আমরা অধীর আগ্রহ এই ভ্যাকসিন এর জন্য অপেক্ষা করছি।”

Reply