দল ভাঙাতে প্রশান্ত কিশোর টাকার থলি নিয়ে ঘুরছেন: দিলীপ ঘোষ

গত কয়েকমাস ধরে বিজেপির ঘর ভাঙছে তৃণমূল। এর জন্য প্রশান্ত কিশোরকে কাঠগড়ায় তুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বললেন, “প্রশান্ত কিশোর ও তাঁর টিম ফোন করে বিজেপি কর্মীদের দলে টানার চেষ্টা করছেন।”

দিলীপ ঘোষ বলেন, “শুধু এই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় নয়। গোটা রাজ্যে পুলিশ দিয়ে ভয় দেখিয়ে বিজেপিকে ভাঙার চেষ্টা চলছে। প্রশান্ত কিশোর টাকার থলি নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ফোন করছেন। পুলিশ ফোন করে হুমকি দিচ্ছে, বলছে চলে আসুন। না হলে গাঁজার কেস দেব। আর দলের কিছু লোক ভয়ে চলে যাচ্ছে। তবে এঁরা আবার দলে ফিরে আসবেন।”

প্রসঙ্গত, কদিন আগেই প্রশান্ত কিশোরের টিম আই-প্যাক- এর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে যে, তৃণমূলে যোগ দেওয়ার ‘অফার’ দেওয়া হচ্ছে বাম বিধায়কদের। যেমন, ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক আলি ইমরান রামজের দাবি, তৃণমূলের পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোর তাঁর সঙ্গে দেখা করে দলবদলের প্রস্তাব দিয়েছেন।

তৃণমূল ফের ক্ষমতায় এলে তাঁকে মন্ত্রী করা হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। তবে ইমরান জানিয়েছেন, প্রশান্ত কিশোরের এই প্রস্তাব তিনি সঙ্গে সঙ্গে ফিরিয়ে দিয়েছেন।

শুধু তাই নয়, গত ৪ অগাস্ট টিম পিকের টেলিকলার ফোন করেন রাজ্যের প্রাক্তন তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী দেবেশ দাসকে। তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব দেওয়া হয়। বলা হয়, আপনি ভালো ও স্বচ্ছ মানুষ। তৃণমূলে কেন যোগ দিচ্ছেন না?”

সেই প্রস্তাব নাকচ করে দেবেশবাবু স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ”আপনি ভুল লোককে ফোন করে ফেলেছেন।” জোড়াজুড়ি করলে দেবেশ দাস স্পষ্ট জানান, সিপিএমের মতাদর্শ আছে। সেটা ছাড়তে পারবেন না। দেবেশ দাসের সঙ্গে আইপ্যাকের কথোপকথন প্রকাশিত হয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে।
যদিও এই সব অভিযোগ অস্বীকার করছে আই-প্যাক।

তথ্যসুত্রঃ khobor24x7

Reply