বাড়িতে ইন্টারনেটের সমস্যা, অনলাইন ক্লাস করতে ভুট্টাক্ষেতের মাচায় উঠে পড়াশুনা করছেন ছোট্ট জারিন

ক’রোনার প্র’কোপে যেদিন থেকে শুরু হয়েছে স্কুল কলেজ বন্ধ হয়েছে সেদিন থেকে ভার্চুয়াল হয়েছে শিক্ষা ব্যবস্থা।ভার্চুয়াল ক্লাসের জন্য গ্রামে থাকা পড়ুয়াদের ভীষন রকম বাধাই পেতে হচ্ছে। কিন্তু ইচ্ছে থাকলেই উপায় হয় তাই গ্রামে থেকেও নিজের পড়াশোনার উপায় নিজেই বের করেছে জারিন।

তেলেঙ্গানার নির্মলা জেলার রাজারা গ্রামে বাড়ি জারিনের। সেখানকারই এক সরকারি স্কুলে সে পড়াশোনা করে। ইন্টারনেট পরিষেবা তার বাড়িতে স্বাভাবিক নয় তাই সে ভার্চুয়াল ক্লাস করতে পারছিল না।

সে নিজেই উপায় বের করেছে স্বাভাবিক ইন্টারনেটের সুযোগ পাওয়ার। ভুট্টা ক্ষেতের মাঝে যে উঁচু মাচা তৈরি করা থাকে সেখানে ভালো ইন্টারনেট সুবিধা পাওয়া যায় বলে সেখানেই বসে পড়াশোনা করে ছোট জারিনা।

শিক্ষাকে ভালোবেসে তার এই উপায় কদিন আগে একটি ভিডিওর মাধ্যমে ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। শিক্ষা গ্রহণের জন্য জারিনের অদম্য ইছেশক্তি দেখে আপ্লুত নেট জনতারা। তেলেঙ্গানার 14 লক্ষ শিক্ষার্থী ভার্চুয়াল ক্লাসেই পড়াশোনা করছে।

শুধু শিক্ষার্থীরাই নন, অস্বাভাবিক ইন্টারনেট পরিষেবার শিকার গ্রামের শিক্ষকরাও। লকডাউনের শুরুতেই আমরা খোঁজ পেয়েছিলাম এক শিক্ষকের যিনি গ্রামের বাইরে গাছের ওপর বসার জায়গা করে সেখান থেকেই পড়াতেন তার শিক্ষার্থীদের। এভাবেই বাধা পেরিয়ে নিজের ইচ্ছে পূরণ করার উপায় নিজেরাই খুঁজে নিয়েছেন অনেকেই।

Reply