বিশ্বমঞ্চে রাষ্ট্রসংঘে ফের সেরার সেরা শিরোপা পেলো বাংলার “সবুজ সাথী” এবং “উৎকর্ষ বাংলা” প্রকল্প

একুশের বিধানসভা ভোট কে পাখির চোখ করে একের পর এক কর্মসূচি গ্রহণ করছে রাজ্যের শাসক দল থেকে শুরু করে বিরোধীরা। যেকোনো বিষয়ে বারে বারে দু’র্নী’তির অভিযোগ তুলছে বিজেপি

এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে এলো রাষ্ট্রসংঘ থেকে প্রাপ্ত পুরস্কার। রাষ্ট্রসংঘে সেরার পুরস্কার পেল রাজ্য সরকারের “সবুজ সাথী” প্রকল্প এবং স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর দিক থেকে সেরার শিরোপা পেল “উৎকর্ষ বাংলা” প্রকল্প।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে সমস্ত সরকারি প্রকল্পগুলি চালু রয়েছে, বিশেষত সবচেয়ে সেরা প্রকল্পটিকে বেছে নিয়ে পুরস্কৃত করে রাষ্ট্রসংঘ। ওয়ার্ল্ড সামিট অন দ্য ইনফরমেশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড নামে পরিচিত সেই সম্মানীয় পুরস্কার।

প্রশাসনিক সাফল্যের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সম্মান হিসাবে এই সম্মান কে গণ্য করা হয়। একুশের বিধানসভার ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে দু’দুটো প্রকল্পের জন্য বড়োসড়ো পুরস্কার প্রাপ্তি কার্যত এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গেছে মুখ্যমন্ত্রী কে।

গত ৭ সেপ্টেম্বর ১৬০টি দেশের তরফে মোট ১৬০০টি প্রকল্পের মধ্যে প্রতিযোগিতার ভার্চুয়ালি ফলাফল প্রকাশ করা হয়। সেখানেই সেরার শিরোপা জিতে নিয়েছে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কতৃর্ক চালু করা দুই প্রকল্প।

বেশ কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠকে জানান,”আমরা এ রাজ্যে সাইকেল কারখানা করতে চাই। আমাদের এখানে ‘সবুজ সাথী’ প্রকল্পে যখন এত বেশি সাইকেল দেওয়া হচ্ছে, তাহলে কেন এখানে সাইকেল কারখানা তৈরি হবে না? এতে তো আমাদের এখানে কর্মসংস্থানের সুযোগ বৃদ্ধি পেতে পারে। এই বিষয়টি দেখতে হবে।”

গতবছরও মুখ্যমন্ত্রী কর্তৃক চালু করা প্রকল্প সবুজসাথী রাষ্ট্রসঙ্ঘের পুরস্কার জিতেছিল। সূত্রের খবর,১৬০টি দেশের তরফে মোট ১৬০০টি প্রকল্পের মনোনয়ন জমা পড়েছিল। সেখানেই সেরার শিরোপা শুধু তাই নয় এবছর উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প টি পুরস্কার লাভ করে মুখ্যমন্ত্রীকে সেরার শিরোপা এনে দিল।

Reply