‘রাফালের অন্তর্ভুক্তির জন্য এর থেকে ভালো সময় হতে পারেনা’, চীনকে কড়া বার্তা রাজনাথের

আজ কিছুক্ষণ আগেই আম্বালা বায়ুঘাঁটিতে আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতীয় বায়ুসেনার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে রাফাল যু-দ্ধ বিমান। অন্যদিকে লাদাখ সীমান্ত বরাবর ফের চীনা আগ্রাসনের খবর মিলেছে। ঠিক এই সময়ে আজ আম্বালা বায়ু ঘাঁটির অনুষ্ঠানে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদোরিয়া দু’জনেই জানালেন, বায়ুসেনাতে রাফালের অন্তর্ভুক্তির জন্য এর থেকে ভালো সময় আর কিছু হতে পারে না। যে মন্তব্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে বায়ুসেনার ১৭ নম্বর স্কোয়াড্রনে (যা গোল্ডেন অ্যারোজ নামে পরিচিত) সর্বধর্ম পুজো, প্রদর্শনী ও জলকামান স্যালুট এর মধ্যে যোগদান করে রাফাল যু-দ্ধ বিমান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্ল। তাঁর সামনেই কড়া ভাষায় রাজনাথ বলেন, “রাফালের অন্তর্ভুক্তির মধ্যে দিয়ে সারা বিশ্বের কাছে ভারত একটি কড়া বার্তা দিল। যারা আমাদের সার্বভৌমত্বের উপর চোখ রাঙাচ্ছে তাদেরকেও জোরদার বার্তা দেওয়া গেল। আমাদের সীমান্তে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, বলা ভালো তৈরি করা হয়েছে তা বিচার করে রাফালের অন্তর্ভুক্তি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।” তাঁর বক্তব্য থেকে স্পষ্ট যে তিনি নাম উল্লেখ না করে চীনকে কটাক্ষ করেছেন।

তবে রাফাল হাতে আসার আগেও যেভাবে পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় বায়ুসেনা নিজেদের তৎপরতা দেখিয়েছে তার ভূয়সী প্রশংসা করেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। তিনি বায়ুসেনার সহকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, “সম্প্রতি সীমান্তে দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার সময় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে দ্রুত ও সুচিন্তিত পদক্ষেপের মাধ্যমে ভারতীয় বায়ুসেনার অঙ্গীকার ফুটে উঠেছে। সীমান্ত লাগোয়া ঘাঁটিতে যেভাবে ভারত ভারতীয় বায়ুসেনা নিজেদের বীরত্ব দেখিয়েছেন তাতে আমরা ভরসা পেয়েছি যে নিজেদের দায়িত্ব নিতে তারা পুরোপুরি তৈরি।”

Reply