দেশকে রসাতলে পাঠিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সবকিছু চাঙ্গা, দেশের অবস্থা নিয়ে মোদিকে বিঁধলেন রাহুল

দেশের অর্থনীতির অবস্থা দিনের-পর-দিন বিপর্যয়ের মুখে পতিত হচ্ছে। একইসঙ্গে বাড়ছে জিডিপির হ্রাস। দেশজুড়ে ক’রোনা পরিস্থিতি, কর্মসংস্থান হীন মানুষ,বেকারত্ব বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বি’রুদ্ধে সরব হলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

প্রধানমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করে এদিন রাহুল বলেন,”ক’রো’নার বিরু’দ্ধে ‘সুপরিকল্পিত’ ল’ড়া’ইয়ের জন্য দেশ রসাতলে গিয়েছে৷ ১.ইতিহাসে এই প্রথম দেশের জিডিপি-তে ২৪ শতাংশ পতন ঘটেছে৷ ২. দেশের ১২ কোটি মানুষ চাকরি হারিয়েছে ৷

৩. বাড়তি ১৫.৫ লক্ষ কোটি টাকার ঋণের বোঝা চেপেছে৷ এবং ৪. প্রতিদিন সমগ্র বিশ্বে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে ভারতে৷ কিন্তু ভারত সরকার ও সংবাদমাধ্যমের কাছে ‘সবকিছু চাঙ্গা’৷”

সোনিয়া পুত্র রাহুল মনে করেন, দেশের ক’রো’না মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তিনি বলেন, আক্রান্তের নিরিখে ব্রাজিলকেও ছাপিয়ে গিয়েছে ভারত। বর্তমানে আক্রান্ত নিরিখে সারা পৃথিবীর মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারতবর্ষ। এই অবস্থায় দেশের মানুষকে নিয়ে কি ভাবছেন প্রধানমন্ত্রী তা দেশবাসীর সামনে জানানো উচিত বলে মনে করেন রাহুল।

এদিন রাহুল গান্ধী আরও বলেন, ‘‘মোদী শুধুই নিজের বন্ধুদের কথা শুনছেন আর তাঁদেরই বিকাশ ঘটাচ্ছেন। দেশের যুব সমাজ যখন নিজেদের হকের টাকার দাবিতে উপার্জনের সুযোগ চাইছে, তখন চুপ করে রয়েছেন মোদী।” দেশের যুবসমাজের প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের কোন গুরুত্বই নেই বলে দাঁড়িয়ে রাহুলের।

বেশ কিছুদিন আগে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ট্যুইট করে জানিয়েছেন,”দেশের অর্থনীতির পতনের অন্যতম কারণ গব্বর সিং ট্যাক্স বা জিএসটি।” রাহুলের মতে, কেন্দ্র সরকারের এই নীতি গরিব মানুষদের আরো বিপর্যয়ের মুখে ফেলেছে এবং অনেকেই কাজ হারিয়েছেন।

রাজ্য গুলির উপর অর্থনীতির এই ধরন যথেষ্ট প্রভাব ফেলেছে। ত্রুটিপূর্ণ জিএসটির বিরুদ্ধে দেশবাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান রাহুল। আগামী সোমবার থেকে শুরু হতে চলেছে লোকসভার বাদল অধিবেশন। তাই জিএসটি, ক’রো’না, কর্মসংস্থান হীনতার কথা তুলে বারেবারে কেন্দ্র কে আ’ক্র’মণ করতে চাইছে কংগ্রেস।

Reply