পুরোহিত ভাতা কে “মরাণকালে হরিনাম” বলে মমতা কে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা

পুরোহিত ভাতা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কে কড়া ভাষায় কটাক্ষ করলেন বিজেপির জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। পুরোহিত ভাতাকে “ম’রণকা’লে হরি’নাম” বলেও দাবি করেন তিনি। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপির জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বলেন,

“জয় শ্রীরাম শুনলে যে মুখমন্ত্রী রেগে যেতেন, এখন তিনিই রামায়ন, মহাভারত, বৈষ্ণব পদাবলী নিয়ে মেতে উঠেছেন। বিদায়ের শেষ লগ্নে এসব কথা মনে পড়ছে তাঁর।”

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নবান্ন থেকে ঘোষণা করেন,রাজ্যের প্রায় ৮ হাজার পুরোহিতকে পুজোর মাস থেকে হাজার টাকা করে ভাতা দেওয়া হবে। একইসঙ্গে দরিদ্র অসহায় পুরোহিতদের জন্য বাংলার আবাস যোজনার আওতায় ঘর করে দেওয়া হবে।

বাংলার পুরোহিতদের দুরবস্থা নিয়ে মোট চারবার বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। ভবিষ্যতে আরও নাম জমা পড়লে তা বিবেচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে বলে আধিকারিকরা জানিয়েছেন।

ইমাম-মোয়াজ্জনদের ভাতা দেওয়া নিয়ে বিরোধীদের আ’ক্রম’ণের মুখে পড়তে হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী কে। পুরোহিতদের কেন ভাতা দেওয়া হল না সেই নিয়ে সরব হয়েছিল রাজ্য বিজেপি। পুরোহিতদের সংগঠনগুলিও সরকারের উপরে এই নিয়ে চাপ সৃষ্টি করছিল।

এদিন পুরোহিতদের ভাতা দেওয়ার সরকারি সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”এর আগে অ্যাকাডেমি তৈরির জন্য আমরা সনাতন ব্রাহ্মণ গোষ্ঠীকে কালীঘাটে জমি দিয়েছি।

এই গোষ্ঠীর বহু পুরোহিত খুব গরিব। আমরা তাঁদের অর্থনৈতিকভাবে সহায়তার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সরকার তাঁদের প্রতি মাসে ১,০০০ টাকা করে ভাতা দেবে। এছাড়া সরকারি আবাস যোজনার আওতায় তাঁদের বাড়ি বানিয়ে দেওয়া হবে”।

Reply