ঈশ্বর প্রদত্ত কন্ঠ! অসাধারণ সুরে গান গেয়ে ভাইরাল খুদে, নেটদুনিয়ায় প্রশংসার ঝড়…

আমাদের প্রথম শিক্ষা আমরা পেয়ে থাকি মায়ের থেকে। বলাবাহুল্য মা হল আমাদের প্রথম শিক্ষাগুরু। মায়ের দেওয়া শিক্ষা সং’স্কার আমাদের জীবন পথে চলতে অনেকখানি সাহায্য করে।

শুধু প্রথম না জীবনের প্রত্যেকটি অধ্যায়ে আমরা মায়ের থেকে শিক্ষা অর্জন করি। এটি ব্যতিক্রম হয়নি আমাদের ছোট্ট সোশ্যাল মিডিয়া খ্যাত সংগীতশিল্পী ইয়ানা দেবের ক্ষেত্রেও।

ভূপালের বাসিন্দা ইয়ানা দেব ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার অনবদ্য কন্ঠের মাধ্যমে দর্শকদের মনিকোঠায় জায়গা করে নিয়েছে। এত ছোট বয়সে তার সংগীত পারদর্শিতা তাকে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে।

ইতিপূর্বে আমরা জেনেছি ইয়ানার বাবা এবং মা দুজনে সংগীতশিল্পী। পিতামাতার গানের প্রতি এই অনুরাগ থেকেই এত সুন্দর একটি কন্ঠ উপহার পেয়েছে ইয়ানা। এর আগেও বেশ কয়েকটি গান গেয়ে শ্মশান মেডিয়া বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে ইয়ানা।

তবে এবার আর কোন‌ সলো পারফরম্যান্স না একেবারে সংগীতের মঞ্চে মা প্রিয়া দেবকে নিয়ে উপস্থিত ইয়ানা।মায়ের সঙ্গে ডুয়েট গেয়ে এবার দর্শকদের মন জয় করেছে বছর তিনেকের ছোট্ট ইয়ানা।

“আগে ভি জানে না তু” আশা ভোঁসলের এই গানেতেই গলা মিলিয়েছে মা ও মেয়ে। কিছুটা একই রকম পোশাক পরিহিতা তারা। হাতে মাইক্রোফোন নিয়ে যুগ্ম পারফরমেন্সে মেতেছে মা ও মেয়ের এই জুটি।

অসম্ভব সুরেলা কন্ঠের অধিকারী প্রিয়া দেব তার প্রশিক্ষণেই যে এইটুকু বয়সে এতটা সংগীত পারদর্শিতা হয়ে উঠেছে তার মেয়ে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। ভিডিওটি ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে বেশ ভাইরাল হয়েছে।

নেটিজেনরা প্রশং’সামুখর এই মা-মেয়ে জুটি। কমেন্ট বক্স জুড়ে অনেকেই শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। কিছু বিশেষ প্রতিভার অধিকারী হয়ে ভূমিষ্ঠ হয় শিশুরা। তাদের মধ্যে কার ওর আছে ঈশ্বর প্রদত্ত কন্ঠ তকি উন্নীত শৈলীতে পারদর্শী।

কিন্তু প্রতিভাকে উন্মোচন করার চেষ্টা এবং সুযোগ থাকতে হয় তাই অভিবাবকরা যদি শিশুর ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়ে তার প্রতিভা জনসমক্ষে তুলে ধরার জন্য উৎসাহিত করতে থাকেন তাহলে তাদের সন্তান সফলতা অর্জন করবেই তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হলো ভূপালের ছোট্ট মেয়ে ইয়ানা দেব।

Reply