আতঙ্কের মধ্যেই স্বস্তি, করোনা সুস্থের সংখ্যায় আমেরিকা, ব্রাজিলকে ছাপিয়ে গেল ভারত…

করোনায় সুস্থতার নিরিখে আমেরিকা ও ব্রাজিলকে টপকে গেল ভারত। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক একথা জানিয়েছে। ভারতে করোনা মুক্ত হয়েছেন ৪২ লক্ষ মানুষ। আমেরিকায় সংখ্যাটা ৪১ লক্ষের কাছাকাছি।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে সুস্থের সংখ্যা ৪২ লক্ষ ৯৯ হাজার ৭২৪। সেখানে আমরিকায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২ লক্ষ ২৩ হাজার ৬৯৩ জন।

দেশে প্রায় প্রতিদিনই সং’ ক্র’ মণ বাড়ছে লাফিয়ে। গত কয়েকদিন ধরেই ৯-এর ঘরে ঘোরাফেরা করছে সংক্রমিতের সংখ্যা। দৈনিক ৯৮ হাজার ছুয়েছে সং’ ক্রম’ ণ।

করোনা রুখতে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে বহুবার সরব হয়েছে কংগ্রেস। রাহুল গাঁধী সরাসরি আ’ ক্রম’ ণ করেছেন মোদীকে।

এই পরিস্থিতিতে সুস্থতার পরিসংখ্যানকে যে কেন্দ্র হাতিয়ার করতে চলেছে, তার ইঙ্গিত মিলেছে এদিন। স্বাস্থ্যমন্ত্রক এর পুরো কৃতিত্ব কেন্দ্রীয় সরকারকে দিয়েছে।

মন্ত্রক জানিয়েছে, করোনা আ’ ক্রান্ত’ দের চিহ্নিতকরণে কেন্দ্রের কার্যকরী উদ্যোগ, দ্রুত টেস্ট, তৎপরতার সঙ্গে নজরদারি চালিয়ে যাওয়া, উন্নতমানের চিকিৎসা পরিষেবার সম্মিলিত ফল বিশ্বে করোনা মুক্তির ক্ষেত্রে এই সাফল্য।

গোটা বিশ্বে করোনা সুস্থতার মোট ১৯ শতাংশের দাবিদার ভারত। করোনা সুস্থতার হার ভারতে উর্ধ্বমুখী। ৭৯.২৮ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৫,৮৮০ জন।

১৬টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল মিলিয়ে ৯০ শতাংশ সুস্থতা। সুস্থতার ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছে পাঁচ রাজ্য। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত তথ্য বলছে, সুস্থতার ৬০ শতাংশ দখল করে রেখেছে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক ও উত্তরপ্রদেশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২২ হাজার মানুষ(২৩ শতাংশ)। অন্ধ্রে সুস্থতার হার ১২.৩ শতাংশ অর্থাৎ ১১ হাজার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, কোভিড মোকাবিলায় কেন্দ্রের সুসংহত, কার্যকরী পদক্ষেপের জন্য ভারতে সুস্থতার হার যথেষ্ট ভাল এবং তা ধরে রাখাও সম্ভব হচ্ছে।

Reply