‘জঙ্গিদের গ্রেফতার করার মুরোদ নেই, সাধারণ মানুষকে বিজেপি করার অপরাধে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, দাবি দিলীপের

গতকাল পশ্চিমবঙ্গ থেকে ছয়জন আলকায়দা জ”ঙ্গী’ কে গ্রেপ্তার করে এনআইএ। কাদের মধ্যে প্রত্যেকেই মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা। প্রতিবেশী রাজ্য কেরল থেকে আরও তিনজন আলকায়দা গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এই নিয়ে বাংলার রাজনীতির মহলে তুলকালাম শুরু হয়ে গিয়েছে। উপরন্তু এগিয়ে আসছে একুশের বিধানসভা নির্বাচন। শাসকদলের বি’রু’দ্ধে বিরোধীদের পাশাপাশি মুখ খুলেছেন রাজ্যপাল।

এবার এই নিয়ে সরব হলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বাংলা জুড়ে জ’ঙ্গি’দের অনৈতিক কার্যকলাপের জন্য শাসক দলকে দায়ী করে বসলেন তিনি। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান,”পুলিশ জঙ্গিদের গ্রেপ্তার করতে পারছে না।

অথচ সাধারণ মানুষকে বিজেপি করার অপরাধে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। গাঁ’-‘জা*র কে’স দেওয়া হচ্ছে। তৃণমূল জঙ্গলমহলে মাওবাদীদের গতিবিধি এবং সারা পশ্চিমবাংলায় ইসলামিক জ”ঙ্গি সংগঠনের গতিবিধি বাড়িয়ে তুলছে।

এই দুই গোষ্ঠীকে কাজে লাগিয়ে ভোট জেতার চেষ্টা করছে। বিজেপি নেতাদেরও পেটানো হচ্ছে। CAA পাশ হওয়ার পর তৃণমূল বিরোধিতা করেছে।” তিনি আরো বলেন যে,”পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জন্যই দেশে জঙ্গি কার্যকলাপ বাড়ছে”।

শাসক দলের প্রতি দিলীপ ঘোষের অভিযোগ,”পশ্চিমবঙ্গ সরকারের দায়িত্ব সীমান্তে নজর রাখা। ভারত অসুরক্ষিত হয়ে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের জন্য। কারণ, বাংলার সরকারই একমাত্র জাতীয় নিরাপত্তার পরিবর্তে রাজনীতিকে গুরুত্ব দেয়।”

ইতিপূর্বে খাগড়া গড়ে যে বিস্ফোরণ ঘটেছিল তাই নিয়ে ও শাসক দলকে দোষ দিয়েছিলেন দিলীপ। এবারও জ”ঙ্গি’দেরকে এনআইএ এর গ্রেপ্তার করার বিষয় নিয়ে সরব হলেন তিনি। বাদ যাননি বিরোধীরাও।

Reply