“এবার পুজোয় পুলিশকে চুড়ি উপহার দেব”, বিতর্কিত মন্তব্য বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রার

পুজোয় পুলিশকে চুড়ি উপহার দিতে চান বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। রাজগঞ্জে নির্যাতিতা নাবালিকা এবং তার পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করে বসেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। রাজ্য পুলিশের কর্মকাণ্ড দেখে পুলিশকে অপদার্থ বলে কটাক্ষ করলেন তিনি।

জলপাইগুড়ি জেলার অন্তর্গত রায়গঞ্জে সন্ন্যাসীকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের নবগ্রামে জান বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। নেত্রীকে কাছে বহুদিনের জমে থাকা ক্ষোভ উগরে দিলেন ওই স্থানের বাসিন্দারা। ট্যাংরা পাড়া গ্রামের বাসিন্দা সোমারু মহম্মদ নামক এক ব্যক্তির অভিযোগ, তার মেয়ে গত নয় মাস ধরে নিখোঁজ।

মেয়েকে খুঁজতে পুলিশ ৮০০০ টাকা ঘুষ নিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। তবে রাত্রেবেলা তিনি তার বয়ান বদলে নেন। অগ্নিমিত্রা বলেন,”নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে থানায় তুলে নিয়ে গিয়ে সোমারু মহম্মদকে বয়ান বদল করতে বাধ্য করেছে পুলিশ।”

রাজগঞ্জে নি’র্যা’তিত বালিকা এবং তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান বিজেপি মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। কিন্তু ওই বালিকা হাসপাতালে ভর্তি থাকার কারণে তার সঙ্গে দেখা হয়নি। শুক্রবারে শিলিগুড়িতে দলীয় কর্মসূচি সেরে আবার জলপাইগুড়িতে ফেরেন তিনি।

জেলা হাসপাতালে ওই নাবালিকাকে দেখতে গিয়ে জানতে পারেন যে তাকে একটি স্থানীয় হোমে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পলের অভিযোগ, পুলিশ নিজেদের দোষ ঢাকতে লুকোচুরি খেলছে। তিনি বলেন,”আমরা ঠিক করেছি এবার পুজোয় পুলিশকে চুড়ি উপহার দেব।

আপাতত তারা সেই চুড়ি হাতে পরে বসে থাকুক। একুশ সালে আমরা ক্ষমতায় এলে চুড়ি খুলে নেব।” এরপর শিলিগুড়ি থেকে ফেরার ওই নাবালিকা সম্পর্কে খোঁজখবর নেওয়ার জন্য রাজগঞ্জ থানা এবং মহিলা থানার পুলিশের সাথেও সাক্ষাৎ করেন তিনি।

Reply