এক পরিচালক আমার ক্লিভেজ এবং থাই দেখতে চেয়েছিল, জানালেন সুরভীন চাওলা

একের পর এক অভিনেত্রীরা কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুলছেন। জারিন খানের পর এবার কাস্টিং কাউচ নিয়ে কথা বললেন সুরভীন চাওলা। তিনি বলেন, তিনবার কাস্টিং কাউচের সম্মুখীন হয়েছিলেন এবং অভিজ্ঞতাটা একেবারেই খারাপ ছিল। বলিউড এবং কলিউডেও এই ধরণের সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। সুরভীন বলেন, ‘এক পরিচালক আমার থাই এবং ক্লিভেজ দেখতে চেয়েছিলেন।

সাউথ ইন্ডাস্ট্রিতে আমার সঙ্গে তিনবার কাস্টিং কাউচের ঘটনা ঘটেছে। এক পরিচালক আমায় বলেছিলেন, তিনি আমার দেহের প্রতিটা অংশ দেখতে চান। আর এরপর থেকেই আমি তাঁর ফোন রিসিভ করা বন্ধ করে দিয়েছিলাম।’

অভিনেত্রী বলেন, সাউথের একজন নামী এবং জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত পরিচালক তাঁকে এমন একটি প্রস্তাব দিয়েছিলেন যার কারণে তিনি ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে বেড়িয়ে আসতে বাধ্য হন। সুরভীন বললেন, ‘সেই সময় আমি ছবির অডিশন দিচ্ছিলাম এবং অনেকটা সময় লেগেছিল। আমাকে অনেক কিছু করতে হয়েছিল। আমি একা ছিলাম। অসুস্থ হয়ে পড়ি। এরপর এক পরিচালক আমাকে বললেন,’অসুস্থ বোধ করছ? আমার সঙ্গে মুম্বই আস।’ কথাটা শুনে আমার ভালো লাগেনি। আমি বললাম, ‘না, ধন্যবাদ।’ আরও একটি ঘটনার কথা তুলে ধরলেন তিনি।

অভিনেত্রী আরও বলেন,’ওই একই দিনে আমার কাছে একটি ছবির অফার আসে। কিন্তু পরিচালক হিন্দি বা ইংরেজি বলতেন না, তাই তাঁর বন্ধু আমাকে পুরো বিষয়টা জানালেন। পরিচালকের বন্ধু বলেন, ‘স্যার আমাকে জানতে চান। তাঁকে আপনাকে বুঝতে হবে । ছবিটি বানাতে অনেকটা সময় লেগে যাবে। এরপর তিনি একেবারে উলটো সুর ধরেন এবং জানান, ‘ যতক্ষণ না ছবিটি শেষ হচ্ছে আপনাকে থাকতে হবে।’ স্পষ্ট ভাবে আমি জানিয়ে দিলাম আপনারা ভুল কাউকে ধরেছেন।’

Reply