করোনা পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র শিল্প ও মধ্যবিত্তের জন্য বড় ছাড় মোদী সরকারের! ইএমআই-এর উপর বকেয়া সুদ প্রত্যাহার!

করোনা পরিস্থিতি বিচার করে সুনির্দিষ্ট মেয়াদের ঋণ অর্থাৎ টার্ম লোনের উপর ৬ মাসের জন্য মোরাটোরিয়াম (moratorium) বা স্থগিতাদেশ ঘোষণা করেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (Reserve Bank of India)। ৬ মাস গৃহঋণ, শিক্ষা ঋণ, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য মাসিক সহজ কিস্তির টাকা তথা ইএমআই দেওয়া স্থগিত রাখার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। আর আজ সর্বোচ্চ আদালতে নরেন্দ্র মোদীর সরকার জানালো, ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণের জন্য মোরাটোরিয়ামের মেয়াদে ইএমআই-এর উপর যে সুদ বকেয়া হয়েছে তা গ্রাহককে দিতে হবে না। কেন্দ্রীয় সরকার‌ই সেই খরচ বহন করবে।

করোনা সংক্রমণের জেরে দেশে তীব্র অর্থনৈতিক সংকট শুরু হওয়ায় নির্দিষ্ট মেয়াদের ঋণের উপর মোরাটোরিয়াম ঘোষণা করেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। সেখানে বলা হয়েছিল, কোনও গ্রাহক চাইলে তিন মাস ঋণের কিস্তি পরিশোধ করা স্থগিত রাখতে পারেন। পরে মোরাটোরিয়ামের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হয়। কিন্তু রাষ্ট্রায়ত্ত ও বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলি গ্রাহকদের স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল, কিস্তির টাকা দেওয়া বন্ধ করলে বকেয়া আসল ও সুদ উভয়ের উপরেই ওই মেয়াদের জন্য সুদ দিতে হবে।

সরকারের এই পদক্ষেপে মধ্যবিত্ত শ্রেণি যে ভীষণ ভাবে উপকৃত হবে তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। কারণ, গৃহঋণ, শিক্ষা ঋণ, গাড়ি কেনার জন্য ঋণ, ক্রেডিট কার্ডের বকেয়া, ফ্রিজ-টিভির মতো কনজিউমার গুডস কেনার জন্য ইএমআই—সব ক্ষেত্রেই এই ছাড় পাওয়া যাবে। তা ছাড়া এতে আর্থিক সুরাহা হবে সেই সব ক্ষুদ্র শিল্প সংস্থার, যারা ব্যাঙ্ক থেকে ২ কোটি টাকা বা তার কম টাকা ঋণ নিয়েছে।

Reply