“টাকা দিয়ে ক্লাবের ছেলেদের হা’র্মা’দ তৈরি করছেন মমতা”, মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ সৌমিত্রর

দুর্গাপূজা উপলক্ষে ক্লাবগুলোকে মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া ৫০,০০ টাকার অনুদান বিষয় নিয়ে সরব হলেন বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ। কৃষি সুরক্ষা বিল এর সমর্থনে মিছিলে শামিল হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

এদিন কৃষি বিলের সমর্থনে বসিরহাট বিজেপি সাংগঠনিক জেলার পক্ষ থেকে এদিন হাসনাবাদের থুবা মোড় থেকে হাসনাবাদ বিডিও অফিস পর্যন্ত এক বিশাল মিছিলের আয়োজন করে বিজেপি। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সৌমিত্র খাঁ।

এদিন সৌমিত্র বলেন, গত বার ভোটের আগে ক্লাবগুলোকে টাকা দিয়ে ভোট আদায় করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবারের পুজোর আগে ক্লাবগুলোকে টাকা দিয়ে ক্লাবের ছেলেদের হা’র্মা’দ বানাতে চান তিনি। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী ক্লাব গুলিকে কিনে নিতে চান বলেও অভিযোগ করেন সৌমিত্র খাঁ।

অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের কাণ্ড নিয়ে সেখানকার সরকারের পাশে দাঁড়ালেন সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেন, উত্তরপ্রদেশের হাথরাস কাণ্ডের পর ফাস্টট্রাক কোর্টে শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু এ রাজ্যে কটা ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট রয়েছে সেই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। শাসক দলকে মিথ্যাবাদী বলে কটাক্ষ করেন তিনি।

এদিনের মিছিলে অংশগ্রহণ করেন রাজ্য বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ, বসিরহাট বিজেপির সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তারকনাথ ঘোষ, বসিরহাট বিজেপি যুব মোর্চা সভাপতি পলাশ সরকারসহ বসিরহাট সাংগঠনিক বিজেপি জেলার কয়েক হাজার কর্মী সমর্থকরা।

এদিন লাঙল কাঁধে নিয়ে টাকির তুবা মোড় থেকে পদযাত্রা শুরু করেন সৌমিত্র খাঁ। এরপর হাসনাবাদে আয়োজিত এক সভায় বক্তৃতা রাখেন তিনি। তার আগে বসিরহাট বিজেপি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি তারকনাথ ঘোষ লাঙ্গল ও চাষীদের টুপি দিয়ে বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁকে বরণ করে নেন।

কৃষি বিলের সিদ্ধান্তের মুখ্যমন্ত্রীর অমত নিয়ে তিনি বলে, মুখ্যমন্ত্রী কোনো গঠনমূলক সিদ্ধান্ত নিতে জানেন না। এ দিনের মিছিলে সামাজিক দূরত্ব তো দূরের কথা কারোর মুখে মাস্ক পর্যন্ত ছিল না।

Reply