‘ভোটের দিন গ্রামের মুখে বাঁশ নিয়ে বসে থাকবেন’, কর্মীদের নিদান দিলীপের

তৃণমূলের মোকাবিলা করতে ভোটের দিন দলীয় কর্মীদের বাঁশ নিয়ে প্রস্তুত থাকার নিদান দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, এবার দিদির পুলিশ দিয়ে এবার ভোট হবে না। দিল্লি থেকে অমিত শাহের পুলিশ আসবে।

মঙ্গলবার সকালে পাথরপ্রতিমার জি প্লট পঞ্চায়েতের ইন্দ্রপুরে যান দিলীপ ঘোষ। সেখানেই একুশের নির্বাচন নিয়ে কর্মীদের সঙ্গে আলোচনা সভা ছিল তাঁর। সেখানেই তৃণমূলকে শিকড় থেকে উপরে ফেলার ডাকও দেন দিলীপ ঘোষ। বলেন, “রাজ্যের ক্ষমতা তৃণমূলের হাতে থাকলে বাংলার মানুষের সম্মান থাকবে না।”

এরপরই ভোট লুঠ প্রসঙ্গে এক কর্মী প্রশ্ন করলে বিজেপি সাংসদ বলেন, “দিদির পুলিশ দিয়ে এবার ভোট হবে না। দিল্লি থেকে অমিত শাহের পুলিশ আসবে। বুথের একশো গজের মধ্যে দিদির পুলিশ, তৃণমূলের গুণ্ডা কেউ-ই পৌঁছতেই পারবে না।” বিজেপি কর্মীদের তাঁর নির্দেশ, “ভোটের দিন গ্রামের মুখে বাঁশ নিয়ে বসে থাকবেন। ভোট লুঠ করতে এলে একজনকেও হেঁটে বাড়ি ফিরতে দেবেন না।”

হাথরাস প্রসঙ্গে এদিন বেফাঁস মন্তব্য করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলেন, “বাংলার পাড়ায় পাড়ায় ধ’র্ষ’ণে’র ঘটনা ঘটছে। তখন মুখ্যমন্ত্রী চুপ। উত্তরপ্রদেশে কে একজন মহিলার ধ’র্ষ’ণ নিয়ে দিদিমণি রাস্তায় হেঁটে বেড়াচ্ছেন।”

এদিকে, ওই সভায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন বসিরহাট দক্ষিণের প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক শমীক ভট্টাচার্য। জানা গিয়েছে, মোহনপুর এলাকার কাছে আচমকাই তাঁর গাড়ি ঘিরে ধরে কয়েকজন। এরপর ভাঙচুর করা হয় গাড়ির কাচ। এমনকী গাড়িতে থাকা নেতার উপর হা’ম’লা চলে। তাঁর মোবাইল, পার্স কেড়ে নেওয়া হয়। হা’ম’লা’র মুখে পড়ে থানায় আশ্রয় নেন তিনি।

Reply