বাংলার মতো দুর্নীতিবাজ সরকার আর কোথাও নেই: তেজস্বী সূর্য

বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে দিনভর অশান্ত কলকাতা। বিজেপিকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের মুহুর্মুহু খণ্ডযু-দ্ধ চোখে পড়ে কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে। বিক্ষোভ সামলাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে, কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায়। এমনকী জলকামান ছুড়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে পুলিশ।

বিজেপির নবান্ন অভিযান রুখতে রাজ্য পুলিশের এই তৎপরতার কড়া সমালোচনায় বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য। ‘‘বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে কালো দিন। গণতন্ত্রকে খু’ন করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। দেশের কোথাও বাংলার মতো দুর্নীতিবাজ সরকার আর নেই।’’ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমনই বললেন বিজেপির এই যুবনেতা।

বৃহস্পতিবার বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে দিনভর অশান্ত শহর কলকাতা। এদিন সকাল থেকেই বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ধন্ধুমার কাণ্ড! কলকাতা, হাওড়ার বিভিন্ন অংশে বিক্ষোভ, আন্দোলনের ছবি ধরা পড়ছে। এদিন সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন অংশ থেকে মিছিল নবান্নের দিকে আসতে শুরু করে।

মিছিল আটকাতে পুলিশের লাঠিচার্জ , কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানোর অভিযোগ। আ’হত হন বহু বিজেপি কর্মী সমর্থক। পরিস্থিতি মোকাবিলায় নামানো হয় RAF। মিছিল শুরুর মুহূর্তেই র’ণক্ষেত্রের চেহারা নেয় কলকাতার হেস্টিংস ও সাঁতরাগাছি চত্বর।

বিজেপির নবান্ন অভিযানের শুরুতেই এদিন র’ণক্ষেত্রের চেহারা নেয় কলকাতার হেস্টিংস ও সাঁতরাগাছি চত্বর। মিছিল ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়।

জলকামানের মাধ্যমে উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করতে রঙিন জল ব্যবহার করা হয়। ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আ’হত হয়েছেন। হেস্টিংস মোড়ে বিজেপি মিছিল এগোতেই বাধা পুলিশের। মিছিল ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশের লাঠিচার্জ। শুরু হয় ইটবৃষ্টি। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ার অভিযোগ। বোমা ফাটানো হয় বলেও অভিযোগ।

এদিকে, অভিযান রুখতে পুলিশের এই তৎপরতার কড়া সমালোচনা করেছেন বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য। তিনি বলেন, ‘‘দেশের কোথাও বাংলার মতো দুর্নীতিবাজ সরকার আর নেই। সিন্ডিকেট ও কাটমানির সরকার চলছে। সরকারের বিরুদ্ধে বললেই হা’মলা হচ্ছে। একের পর এক বিজেপি কর্মী বাংলায় খু’ন হচ্ছেন।’’ আজ বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে কালো দিন। আজ আমাদের হাজারের বেশি কর্মী জ’খম হয়েছেন। গণতন্ত্রকে খু’ন করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।’’

Reply