সরকারি কর্মীদের জন্য উৎসবের উপহার; ₹১০,০০০ অগ্রিম দেবে কেন্দ্র

উৎসবের প্রাক্কালে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের জন্য সুখবর। প্রত্যেক কর্মচারীর জন্য এককালীন ১০ হাজার টাকা বিশেষ অগ্রিম ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় সরকার। গেজেটেড এবং নন-গেজেটেড উভয় কর্মচারীরা এই অগ্রিমের সুযোগ পাবেন। সোমবার GST কাউন্সিলের বৈঠকের আগে দুপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রি-পেইড RuPay কার্ড আকারে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের এই ১০,০০০ টাকা উৎসব অগ্রিম দেওয়া হবে এবং এই অর্থের উপরে কোনও সুদ দিতে হবে না। ১০টা সহজ কিস্তিতে এই টাকা ফিরৎ দেওয়ার সুযোগ পাওয়া যাবে। ফলে সরকারি কর্মচারীদের পকেটে বিশেষ একটা চাপ পড়বে না।

তবে অগ্রিমের টাকা খরচের ক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্তও চাপিয়ে দিয়েছে সরকার। বলা হয়েছে, আগামী ২০২১ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে প্রত্যেক কর্মচারীকে অগ্রিম বাবদ পাওয়া ১০,০০০ টাকা খরচ করতে হবে। কোনও কর্মচারী নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পূর্ণ টাকা খরচ করতে ব্যর্থ হলে পরে আর তিনি বাকি টাকা খরচ করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে যে পরিমাণ অর্থ তিনি খরচ করবেন শুধুমাত্র সেটুকুই ১০ সহজ কিস্তিতে সরকারকে ফিরিয়ে দিতে হবে।

করোনা মহামারি এবং লকডাউনের ধাক্কায় ভারতে বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা তলানিতে এসে ঠেকেছে। তার ফলে সংকুচিত হয়ে পয়েছে অর্থনৈতিক বৃদ্ধি। উৎসবের কয়েক মাস এদেশে সবথেকে বেশি অর্থের বেচাকেনা হয়। অর্থনীতিকে পুরনো ছন্দে ফেরাতে এই সময়টিকে বেছে নিয়েছে সরকার। এই সময় সরকারি কর্মাচারীরা যাতে আরও বেশি খরচ করতে পারেন সে জন্য তাঁদের হাতে বেশি বেশি নগদ অর্থ পৌঁছে দেওয়ার দাওয়াই মোদী সরকারের অর্থমন্ত্রীর।

সাংবাদিক বৈঠকে সরকারের এই লক্ষ্যের কথা বার বার তুলে ধরেন সীতারামন। তিনি জানিয়েছেন, এককালীন বিশেষ উৎসব অ্যাডভান্সের মাধ্যমে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সরকার ৪,০০০ কোটি টাকা বণ্টন করবে। এছাড়া রাজ্য সরকারগুলি ওই একই পদক্ষেপ করলে আরও ৮,০০০ কোটি টাকা বণ্টন হবে। আর সম্পূর্ণ এই অর্থ বাজারে প্রবেশ করবে। এর মাধ্যমে দেশে বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা সৃষ্টি হবে।

Reply