কংগ্রেস মানসিক ভারসাম্যহীন দল! কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দিতেই কটাক্ষ খুসবুর

কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে আসার একদিনের মধ্যেই সম্পূর্ণ ভোল বদল খুশবু সুন্দরের। তামিল সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী খুশবু সোমবার বিজেপিতে যোগদান করেছেন। কংগ্রেস কোন বুদ্ধিমতী মহিলাকে পছন্দ করেন না বলেই দাবি তার।

বুদ্ধিমতী মহিলাদের কংগ্রেসের মধ্যে কোন বাক স্বাধীনতা দেওয়া হয় না বলেও জানান তিনি। সবসময়ই দল কথা শিখিয়ে দিতে এবং দমিয়ে রাখার চেষ্টা করত বলে অভিযোগ করেছেন খুশবু সুন্দর।

মঙ্গলবার চেন্নাই বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে খুশবু সুন্দর বলেন,”কংগ্রেস একটি মানসিক ভারসাম্যহীন দল।” তিনি আরো বলেন,”আমি চিরকাল দলের প্রতি নিষ্ঠা রেখেছি, কিন্তু কংগ্রেস আমাকে অসম্মান করেছে। তাঁরা কোনও বুদ্ধিমতী মহিলা চান না।

আমাকে শুধু একজন অভিনেত্রী হিসেবেই ওঁরা দেখেছেন।” এআইসিসি-র অন্যতম মুখপাত্র খুশবু সোমবার দুপুরে দিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে এসে আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেন।

এর আগে সোনিয়া গান্ধীকে দেওয়া পদত্যাগপত্রে খুশবু লিখেছেন,”দলের অভ্যন্তরে উচ্চ স্তরে বসে থাকা কয়েকজন তা করতে বাধা দিচ্ছে।” তিনি লেখেন,”যে সব লোকের বাস্তবতা বা জনগণের কাছে কোনও স্বীকৃতি নেই তাঁরাই এই কাজ করছে।”

দীর্ঘ সময় ধরে চিন্তার পর কংগ্রেস ছাড়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যে বিজেপিতে যোগদান করেন খুশবু। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রায় ছয় বছর ধরে কংগ্রেসের সঙ্গে ছিলেন খুশবু। আগামী বছর তামিলনাড়ু বিধানসভা নির্বাচনের আগে কংগ্রেসের মধ্যে বেশ কিছুটা হলেও অস্বস্তি বেড়েছে। খুশবু সুন্দর ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে টিকিট না পাওয়ায় বিচলিত হয়েছিলেন বলে দাবি করে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম।

শুধু রাজনীতি কিংবা অভিনয় জগতে নয়,তামিল নাগরিক আ’ন্দো’লনেও বিভিন্ন সময়ে জড়িত ছিলেন খুশবু। অতীতে তামিল জনসমাজে বিবাহপূর্ব যৌ’-ন’তা নিয়ে খুশবুর মন্তব্য বিতর্ক সৃষ্টি করেছিল।

২০১০ এ ডিএমকে তে যোগ দিয়ে রাজনৈতিক জীবনে পদার্পণ করেন খুশবু। ২০১৪ তে কংগ্রেসে যোগদান করেন তিনি। এর কিছুদিন পরেই,এআইসিসির মুখপাত্র হন তিনি। তামিলনাড়ুর দায়িত্বপ্রাপ্ত এআইসিসির পর্যবেক্ষক দীনেশ গুন্ডু রাও জানান,”খুশবুর দলত্যাগে তামিল রাজনীতিতে কোনও প্রভাব পড়বে না।”

Reply