“বিজেপি নেত্রীকে “আইটেম” বলে সম্বোধন কংগ্রেস নেতার, পাল্টা দিল বিজেপিও

মধ্যপ্রদেশের রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা কমল নাথ বিজেপি নেত্রী এবং মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী ইমারতি দেবীকে জনসমক্ষে “আইটেম” বলে সম্বোধন করলেন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর এহেন মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। ইমারতি দেবী আগে কংগ্রেসে যোগদান করলেও বর্তমানে তিনি বিজেপিতে যোগদান করেছেন।

আগামী ৩ নভেম্বর মধ্যপ্রদেশে ২৮ আসনের উপ নির্বাচন এবং ভোট গণনার দিন হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে ১০ নভেম্বর দিনটিকে। উপনির্বাচনে মধ্যপ্রদেশের ডাবরা কেন্দ্র থেকে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন ইমারতি দেবী।

গত বৃহস্পতিবারে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তিনি। তার এই কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া নিয়ে মনোক্ষুন্ন হয়ে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন।

এদিন তিনি বলেন,”আমাদের প্রার্থী ওঁর মতো নন। কী নাম যেন ওঁর?” এই কথা শোনা মাত্রই আমজনতার মুখে ইমারতি দেবীর নাম শোনা যায়। কমল নাথ আরো বলেন,”আমি আর ওঁর নাম কী নেব? আপনারা তো ওঁকে আমার থেকে ভাল করে চেনেন। আপনাদের উচিত ছিল আমাকে সতর্ক করে দেওয়া। এ কেমন আইটেম!”

অন্যদিকে ইমারতি দেবীর অভিযোগ,কমল নাথ তাঁর দলের যে সদস্যদের মন্ত্রী পদ দিতে পারেননি তাঁদের মাসে ৫ লক্ষ টাকা করে দান করেন। তাদের খুশি রাখতে এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানান ইমারতি দেবী। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে পাল্টা মন্তব্য করেন কমল নাথ। তাঁর দাবি, নিজের দোষ ঢাকতে এমন মন্তব্য করেছেন ইমারতি দেবী।

কয়েকটি নারীবাদী সংগঠন কমল নাথের বিতর্কিত মন্তব্য নিয়ে সরব হয়েছেন। এমন বর্বরোচিত মন্তব্যে ক্ষুব্ধ বিজেপি প্রতিবাদ করেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান টুইট বার্তায় লেখেন,”এই ধরনের শব্দ প্রয়োগ করে কংগ্রেস নেতা আসলে নিজের সামন্ততান্ত্রিক মনোভাবই প্রকাশ করলেন”।

তিনি আরও লেখেন,”ইমারতি দেবী সেই দরিদ্র কৃষকের কন্যার নাম যিনি গ্রামে মজদুরের কাজের মাধ্যমে সূচনা করেছিলেন। আর আজ তিনি জনসেবক হিসেবে রাষ্ট্র নির্মাণের কাজে যোগ দিয়েছেন।”

Reply