“কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে দেশের গণতন্ত্র”, মোদীকে কটাক্ষ করে একহাত নিলেন সোনিয়া গান্ধী

বহুদিন পরে মুখ খুললেন সোনিয়া গান্ধী। এবং মুখ খুলেই সমালোচনায় ভরিয়ে দিলেন মোদী সরকারকে।নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আ’ক্র’মণ শানালেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী।

সাংগঠনিক রদবদলের পর এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক ও বিভিন্ন রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিষদগার করেন সোনিয়া।তাঁর কথায়, তিনটি কালা আইনের মাধ্যমে মোদী সরকার ভারতের কৃষি নির্ভর অর্থনীতির মূলে আঘাত হানছে। তিনি এই দিন বলেন, “দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে”।

কৃষি আইনের সমালোচনা করে কংগ্রেস সভানেত্রী বলেন, “সবুজ বিপ্লবকে চাপা দেওয়ার জন্য গভীর ষ’ড়’যন্ত্র হচ্ছে। কৃষকদেরকে বৃহৎ কর্পোরেটের কাছে বন্ধক দেওয়ার ব্যবস্থা করছে কেন্দ্রীয় সরকার।”

তিনি আরও বলেন, ” ছোট ও মাঝারি কৃষক, ক্ষেতমজুরদের দুর্দিন ডেকে আনা হচ্ছে এই কৃষি আইনের মধ্য দিয়ে। শুধুমাত্র বড় ব্যবসায়ীদের স্বার্থ দেখতে গিয়ে। সার্বিক ভাবে প্রান্তিক মানুষের জীবনজীবীকা সংকটের মুখে পড়ে গিয়েছে।”

কোভিড নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা নিয়েও তীব্র সমালোচনা করেন সনিয়া। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন ২১ দিনের মধ্যে ক’রো’না’কে শেষ করবেন। তা তো হয়নি বরং দেশের অর্থনীতিকে পৌঁছে দিয়েছেন খাদের কিনারায়। একদিকে বেকারদের জন্য নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ নেই। অন্যদিকে কোভিড পরিস্থিতিতে কাজ হারিয়েছেন ১৪ কোটি মানুষ।”

তাঁর কথায়, “আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণার নামে কেন্দ্রীয় সরকার শুধু চমক দেওয়ার চেষ্টা করছে। আদতে মানুষের সুরাহা হচ্ছে না।” দেশজুড়ে দলিত-আদিবাসীদের উপর আক্রমণ নিয়েও মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন সনিয়া।

হাথরাসের ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, মোদী সরকারের আমলে দলিতদের উপর আ’ক্র’মণ মাত্রা ছাড়িয়েছে। কখনও ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতা কখনও জাতপাতের বিভাজন এই চলছে দেশে। বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে জঙ্গলের রাজত্ব কায়েম হয়েছে।”

Reply