কুর্নিশ! ৮৭ বছর বয়সেও সাইকেল নিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে চিকিৎসা করে যাচ্ছেন ড. দানেকার

সুদীপ্তা দত্ত: সারা পৃথিবী এখন ক’রোনা ম’হামা’রী দাপটে এমন অবস্থায় আমাদের সারা বিশ্বের ডাক্তার-নার্সরা অক্লান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছে বিশ্ববাসীকে বাঁচানোর জন্য। সেরকমভাবে মহারাষ্ট্রের চন্দ্রপুর গ্রামের একজন ডাক্তার ড. রামচন্দ্র দানেকার, যার বয়স ৮৭ বছর বয়সেও সে গ্রামের মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে এই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও। বয়সের তোয়াক্কা না করে গ্রামে যাদের কো’ভিড ১৯ হয়েছিল, তাদের সকলের চিকিৎসা করেছেন ড. দানেকার।

ক’রো’না ম’হা’মারী চিকিৎসা করার জন্য তিনি সাইকেল করে ১০-১৫ কিলোমিটার দূরে গিয়ে করোনা রোগীর চিকিৎসা করেছেন, কোনো কিছুকে ভয় না পেয়ে। তিনি তার গ্রামের মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সবসময়। আজও এই কঠিন পরিস্থিতির মধ্য থেকে পিছপা হয়নি ড. দানেকার।

তার গ্রামের মানুষদের স্বাস্থ্যের দিকে যথেষ্ট খেয়াল রেখেছেন তিনি এবং প্রয়োজনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসার জন্য ঔষধ পাঠিয়েছেন। যতই দুরত্ব হোক না কেন তার কাছে কোনোকিছুই বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি।

ড. দানেকার দীর্ঘ ৬০ বছর ধরে তার গ্রামের ও আশেপাশের গ্রামের মানুষদের সেবা করে আসছেন। এই সম্বন্ধে ডাক্তার দানেকার বলেছেন, দীর্ঘ 60 বছর ধরে গ্রামের মানুষদের সেবা করছি।

তবে ক’রো’না ম’হা’মারী পরিস্থিতির ফলে আমাকে প্রায় প্রত্যেক দিনই মানুষের সেবার জন্য বাড়ি থেকে বের হতে হয় কারণ এই গ্রামে কোনো ডাক্তার আসতে চায়না সেরকমভাবে। কারন এখনকার নতুন ডাক্তাররা শুধুমাত্র তারা টাকাই বোঝে, গরিব মানুষের সেবা টাকা ছাড়া কখনোই তারা করতে চায়না।

এছাড়াও ডাক্তার দানেকার বলেন, আমার সব সময়ই লক্ষ্য থাকে একদিনে অনেক গ্রামে গিয়ে মানুষদের সেবা করা এবং রাতেও সেই কাজ করার কিন্তু এই পরিস্থিতিতে রাতে আমাকে বাড়ি ফিরে আসতে হয়।

যতদিন আমার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সচল আছে, ততদিন আমি মমানসেবা করে যাব এটাই আমার জীবনের আসল কাজ। জাতপাত ধর্ম তিনি কোন কিছুই মানেননা, নিঃস্বার্থভাবে সকলেরই সেবা করেন।

ডাক্তারবাবুর সম্বন্ধে গ্রামের লোকেরা বলেছেন, ডাক্তারবাবু আমাদের কাছে ভগবান একটা ফোন করলেই ডাক্তারবাবু ভগবানের মতো আমাদের কাছে চলে আসে। করোনার মতো ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্যেও নিজের বয়সের কথা না ভেবে অনেক মানুষের সেবা করেছেন তিনি। আমরা এটাও জানি যে, কোন ডাক্তারকে বিপদের দিনে পাশে না পাওয়া গেলেও ডক্টর দানেকার বাবুকে পাশে পাওয়া যাবে। সত্যি হয়তো এরকম ডাক্তার আমাদের পৃথিবীতে অনেক প্রয়োজনীয়।

Reply