এবারেও ২কোটি চাকরির প্রতিশ্রুতি দিলে মোদিকে তাড়িয়ে ছাড়বে জনতা: রাহুল

বিহারে মোট ৩ দফায় বিধানসভা নির্বাচন , তার প্রথম দফার ভোট শুরু হয়ে গিয়েছে। এদিন নির্বাচন চলাকালীন বিহারের বিভিন্ন অংশ ঘুরলেন এবং প্রচারের ঝড় তুললেন মোদী-রাহুলরা।

মোদি প্রতিজ্ঞা করলেন জনতাকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি রাখবেন বলে আর রাহুল তাকে কটাক্ষ করলেন কর্মসংস্থান নিয়ে। এও বলেন যে , এবার জনতাই মোদিকে তাড়িয়ে দেবে।

বুধবার বিহার ভোটের প্রচারে বাল্মিকীনগরে আসেন সোনিয়া ও রাহুল গান্ধী। এই নির্বাচনী জনসভায় মোদীর 2 কোটি চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতিকে হাতিয়ার করলেন সোনিয়া-তনয়। রাহুল গান্ধী বলেন, ‘‘ প্রধানমন্ত্রী এখন আর ২ কোটি চাকরি দেওয়ার কথা বলেন না কারন তিনি জানেন যে তিনি মিথ্যা কথা বলেছিলেন এবং জনগণ তা বুঝে গিয়েছে।

আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি, যদি প্রধানমন্ত্রী এখন এসে বলেন যে তিনি ২ কোটি চাকরি দেবেন, জনতাই তাঁকে তাড়িয়ে দেবে।’’ রাহুল গান্ধী জনসম্মুখে তোপ দেগেছেন, প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বলে।

থেমে নেন প্রধানমন্ত্রী, তিনিও বিহারে নির্বাচনী প্রচারের ঝড় তুলেছেন । মোজাফ্ফরপুর, দ্বারভাঙা ও পাটনায় জনসভা করছেন প্রধানমন্ত্রী এবং বিহারের মহাজোটকে চাঁচাচোলা ভাষায় কটাক্ষ ও করেছেন।

অযোধ্যার রাম মন্দির প্রসঙ্গ তার বক্তৃতায় টেনে এনে বলেছেন, “অযোধ্যায় মহান রাম মন্দির তৈরি শুরু হয়ে গিয়েছে। আগে রাজনীতিতে যারা আমাদের কাছে মন্দির তৈরির তারিখ জিজ্ঞাসা করতেন তাঁরাই এখন প্রশংসা করতে বাধ্য হন। এটিই বিজেপি এবং এনডিএ-র পরিচয়। আমরা যা-ই প্রতিজ্ঞা করি তা-ই পূরণ করার চেষ্টা করি।’

বিহারকে নিয়ে রাজনৈতিক নেতারা বেশ ভালোই খেলা খেলছে। ক্ষমতা পাওয়ার আগে প্রতিশ্রুতি বদ্ধ সকলেই হয় তাই প্রতিশ্রুতি না দিয়ে কাজ করে দেখিয়ে দেওয়াটাই মনে হয় বেশি ভালো হবে। 10 ই নভেম্বর বিহারের বিধান সভা ভোটের ফল ঘোষণা করা হবে। তার আগে কোন দল কি কি প্রতিশ্রুতি দেয় সেগুলোই দেখার।

Reply