“আমার সরলতাকেই ওরা অহংকার ভাবে”বললেন রানু মন্ডল

আগের বছরই গায়িকা রানু মন্ডল বলিউডের গানের জগতে একটি স্থান অর্জন করে নিয়েছিলেন। প্রথমদিকে রানু মন্ডল ভবঘুরের মত ঘুরে ঘুরে গান গেয়ে বেড়াত।

গান গেয়ে সে ভিক্ষা করতে, ভিক্ষা করে যে টাকা পেত তা দিয়েই তার সংসার চলত কোনমতে। এক কথায় বলতে গেলে কোন কোন দিন তার খাবার জুটত না দুবেলা কখনো তাকে ফাঁকা পেটে বা আধা পেটে থাকতে হত।

হঠাৎ একদিন ভগবানের দূত হয়ে একজন তার পাশে এসে দাঁড়ায়, তিনি হলেন অতীশ চট্টোপাধ্যায় তিনি রানু মন্ডলের গান শুনে মনমুগ্ধ হয়ে যায়।একদিন তাকে অতীশবাবু মুম্বাইয়ে নিয়ে যায় সেখানে রানু মন্ডলের সঙ্গীত পরিচালক ও গায়ক খ্যাত হিমেশ রেশমিয়ার সাথে দেখা হয়।

তারপরেই রানু মন্ডল রাতারাতি সেলিব্রিটি হয়েছে তা আমাদের সকলেরই জানা। কিন্তু কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ার শোনা যাচ্ছিল যে রানু মন্ডল এর অবস্থা খুবই সঙ্কটজনক সে আবার তার ভিক্ষা স্হানে পৌছে যান এবং পান্তা ভাত খেতে হচ্ছে তাকে।

সম্প্রতি রানুমন্ডল একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে, এই সাক্ষাৎকারে নানা প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন রানু মন্ডল। সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন করা হয় তার অহংকার এর ব্যাপারে ,উত্তরের রানু মন্ডল অনেক মানুষই আছে যারা তার সরলতাকে অহংকার মনে করে।

হয়ত আমার দুর্বলতা থাকে অনেকে মনে করে কিন্তু আমি অহংকারী নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার সম্বন্ধে অনেক মিথ্যে কথা রটানো হয়েছিল। সেই সম্বন্ধে উত্তরে বলে এটা তাদের পারিবারিক শিক্ষার বিষয়।

পরে যখন তার মেয়ের সম্বন্ধে জিজ্ঞেস করা হয় তখন বলে যখনই তার মেয়ের সাথে দেখা হয় তখনই কোন কারনে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। মেয়ের সাথে তার কোনো যোগাযোগ নেই, মেয়ের কথা তার মনেও পড়েনা এমন কথায় জানায়।

পড়াশোনার যোগ্যতা সমন্ধে স্কুলে গিয়ে কখনো পড়াশোনা করেননি তিনি। যখন প্রশ্ন করা হয় তাহলে আপনি বাংলা হিন্দি ইংরেজিতে কিভাবে কথা বলেন তখন উত্তরের রানু মন্ডল বলে বোম্বে গিয়ে শিখেছি। তিনি এক ফ্যানের সাথে খারাপ ব্যবহার করেছিলেন সেই সম্বন্ধীয় কথা বলেন রানু মন্ডল।

তিনি বলেন তিনি সেরকম হবে তার সাথে খারাপ ব্যবহার করেননি তিনি যখন শপিং মলে গিয়েছিলেন বলে সবাই তাকে ঘিরে ধরেছিল। তখন একজন মহিলা তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল তখন রানু মন্ডলকে দূরে সরিয়ে দেয় মানুষ এই ব্যবহারকে ভুল ভাবে। অনেক প্রশ্নের উত্তর জবাব দিয়েছেন রানু মন্ডল, শেষ বলেন তিনি রেডিও থেকে গান শুনেশুনে গান শুনেছেন।

Reply