২১শে নির্বাচনে বাংলায় কর্মীদের জন্য ২০০আসনের টার্গেট বেঁধে দিলেন অমিত শাহ

একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার ক্ষমতায় বিজেপি আসছে বলে দাবি অমিত শাহের। বাঁকুড়া শহরের রবীন্দ্রভবনে বঙ্গ বিজেপি নেতা কর্মীদের সম্মুখে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনটাই বললেন তিনি।

এদিনের সভায় থেকে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করে দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি জানান,বিধানসভা নির্বাচনে ২০০টি আসনে জিততে হবে বিজেপিকে। এরপর এই সোনার বাংলা গড়ে তোলা থেকে বিজেপিকে আর কেউ আটকাতে পারবেনা।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে অমিত শাহ বলেন,”বঙ্গ বিজেপির নেতা-কর্মীদের উৎসাহ দেখে আমি আনন্দিত। দুর্নীতিগ্রস্ত তৃণমূল সরকারকে রাজ্য থেকে নির্মূল করতে তাঁরা বদ্ধপরিকর। এই রাজ্যে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বিজেপিকে সরকারে আনতে সবাই খুব পরিশ্রম করছেন। যা দেখে আমি নিশ্চিত এখানে ক্ষমতায় আসা সময়ের অপেক্ষামাত্র”।

এদিনের সভায় অমিত শাহ জানান, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় বিজেপিকে আসতে হলে পুরনো ও নতুন সবাইকে একসঙ্গে নিয়েই কাজ করতে হবে। তিনি মনে করেন, মতানৈক্য সব জায়গাতেই থাকে।

তবে সেসবের উর্দ্ধে উঠে সকলকে নিয়ে কাজ করতে হবে। তাহলেই ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের রাজ্যের ক্ষমতায় আসতে বিজেপির কোনও অসুবিধা হবে না। সারা বাংলার প্রতিটি মানুষের স্বার্থে এখন একসাথে হয়ে পথ চলতে হবে।

ইতিপূর্বে বাংলায় এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেছিলেন। কিন্তু এদিন বাঁকুড়ার সভায় রাজ্যজুড়ে রাষ্ট্রপতি শাসনের বিষয় নিয়ে বেশি সূর চড়াতে দেখা যায়নি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কে। এ প্রসঙ্গে পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বুধবার দমদম বিমানবন্দরে নামেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। নিহত বিজেপি কর্মী মদন ঘোড়ুইয়ের পরিবারের সদস্যরা তারপরই অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেন। ২২ দিন কেটে গিয়েছে মদন ঘোড়ুইয়ের মৃ*ত্যু হয়েছে।

এখনো পর্যন্ত মৃ*তদে’হের ময়না তদন্ত হয়নি বলেই জানান তার পরিবার। পরিবারের অভিযোগ, মৃ*তদে’হ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। অভিযোগের যথাযথ কাজ হয়েছে। বৃহস্পতিবার ২৩ দিন পর ওই বিজেপি কর্মীর মৃ*তদে’হ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

Reply