ভোট আসলে এরকম সবাই সফরে আসেন, কিন্তু ভোট চলে গেলেই ভুলে যায়, শাহ কে কটাক্ষ অধীরের

কলকাতায় সফর করার সময় বিজেপির অমিত শাহ কে বিরোধীকতা করেন জনসাধারণরা। এই নিয়ে বৃহস্পতিবার সভায় বক্তব্য রাখতে দেখা গেল কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী।

সেই সভায় অমিত শাহ কে কড়া ভাষায় কটাক্ষ করেছেন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী। এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেও নিষ্কৃতি দেয়নি এই কটাক্ষের হাত থেকে।

এই সভায় কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী অমিত শাহ কে কটাক্ষ করে বলেন দলিতদের শুভাকাঙ্ক্ষী হয়ে সেজে এসেছেন অমিত শাহ স্টান্ট দেখাতে। এছাড়াও দলিতদের ফুসলাতে এসেছেন তিনি এখানে সফর করতে।

বাংলার মানুষ সবই জানে ভোট আসলে এরকম সবাই সফরে আসেন, কিন্তু ভোট চলে গেলে সবাই ভুলে যায়। অথাৎ অধীর চৌধুরী তার বক্তব্যের মাধ্যমে হাসরথ কাণ্ড নিয়ে কটাক্ষ করেছেন। কথার মাধ্যমে বোঝাতে চাইছেন দলিতদের শুধুমাত্র ভোটের জন্যই এ কাজটি করছেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কটাক্ষের হাত থেকে ছাড়েনি কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী। তিনি বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী কে কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী আমাকে জানা তপশিলি জাতি ও উপজাতির কত শূন্যপদ আছে।

এছাড়াও তিনি আরো বলেন তৃণমূল ও বিজেপি দুজনেই হিন্দুত্ববাদ কে নিয়ে প্রতিযোগিতায় নেমেছে। এছাড়াও কে আগে পাহাড়ে দখল করতে পারে সেই নিয়ে কামড়াকামড়ি চলছে দুই দলের।

অন্যদিকে এই সভায় তৃণমূল দলের অবসানের কথা বলেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন বাংলার মানুষ সবই বুঝতে পারছেন যেখানে ২০ টাকায় ম*’দ পাওয়া যায় আর 60 টাকায় সবজি সমস্ত চিত্রটি বাঙালি বাংলার মানুষের কাছে স্পষ্ট।

নিজের দলের সম্বন্ধে কথা বলতে গিয়ে বলেন কালীপুজো যাওয়ার পরে কংগ্রেস ও বাম একটি জোট গঠন করবে, এবার তারা একসাথেই লড়াই করবে। এমনটাই নিশ্চিত কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী, কিছুদিন আগেও সিপিএমের ডাকা বনধকে সমর্থন করেছিলেন কংগ্রেস।

Reply