বড়ো খবর: এবার থেকে শ্বশুরবাড়ির সম্পত্তির’ও ভাগ পাবে পুত্রবধূ, রায় সুপ্রিম কোর্টের

এবার থেকে স্বামীর পৈতৃক সম্পত্তির ভাগ পাবে পুত্রবধূও, বৃহস্পতিবার এমনটাই রায় দিল সর্বোচ্চ আদালত। আদালত জানিয়েছে, শুধুমাত্র স্বামীর পৃথক সম্পত্তিতেই নয়, তাঁর পিতা মাতার সম্পত্তিতেও সমান অধিকার আছে পুত্রবধূর। সুপ্রিম কোর্টের এই ঐতিহাসিক রায়কে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনেকেই।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার গার্হস্থ্য হিংসা আইনের পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের তরফে এই রায় ঘোষণা করা হয়েছে। ২০০৬ সালের এস আর বাত্রা এবং অন্যান্য বনাম তরুণ বাত্রা মামলার শুনানি চলছিল সুপ্রিম কোর্টে। বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের একটি বেঞ্চ এই শুনানির দায়িত্বে ছিলেন। ওই মামলার রায় দিতে তাঁরাই বৃহস্পতিবার জানান, শুধুমাত্র স্বামীর পৃথক সম্পত্তিতে নয়, স্বামীর পিতা মাতার সম্পত্তিতেও অধিকার রয়েছে পুত্রবধূর।

এদিন আরো জানানো হয়, শ্বশুরবাড়ির যৌথ সম্পত্তি এবং শ্বশুরবাড়ির পৈত্রিক ভিটে বা সম্পত্তির ভাগ পাওয়ার অধিকারী পুত্রবধূ। এমনকি গার্হস্থ্য হিংসা-মামলায় এই যুগান্তকারী রায় দিতে গিয়ে সর্বোচ্চ আদালত জানায়, ‘মামলা চলাকালীন শ্বশুরবাড়িতেই থাকতে পারেন পুত্রবধূ। শ্বশুরবাড়িতে থাকা বধূর অধিকার। গার্হস্থ্য হিংসা আইনে অধিকার বধূর।’

এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বাধীন ওই ৩ সদস্যের বেঞ্চ জানায়, “গার্হস্থ্য হিংসা আইনের ২ নম্বর ধারা অনুযায়ী, যৌথ পরিবারের সম্পত্তির ভাগের অর্থ হল, এক্ষেত্রে শ্বশুরবাড়ির যৌথ সম্পত্তি এবং শ্বশুরবাড়ির পৈত্রিক ভিটে বা সম্পত্তির ভাগও পাবে।”

বস্তুত, এযাবৎ স্বামীর একার পৃথক সম্পত্তি হলে, তাতে অধিকার পেতেন স্ত্রী। কিন্তু বিবাহ সূত্রে শ্বশুরবাড়ির পৈতৃক সম্পত্তিতে কোনো দাবি জানাতে পারতেন না পুত্রবধূ। নিজের ব্যক্তিগত সম্পত্তি অথবা নিজের বাড়ির পৈতৃক সম্পত্তিই সেক্ষেত্রে তাঁর সম্বল ছিল। এদিন সুপ্রিম কোর্টের এই যুগান্তকারী রায় শ্বশুরবাড়ির সম্পত্তিতেও পুত্রবধূর অধিকার স্বীকার করা হল।

Reply