“এবার খেলা শুরু”, জেল থেকে বেরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে হুঁশিয়ারি অর্ণবের…

জেল থেকে বেরিয়েই রুদ্র মূর্তি ধারণ করলেন অর্ণব গোস্বামী। মুম্বাই পুলিশ এবং মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে হুংকার দিয়ে নিজের মুক্তি ঘোষণা করলেন তিনি। শুধু তাই নয়, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের নাম করে তাঁর সরকারের পতনের হুশিয়ারিও দিয়েছেন রিপাবলিক টিভির কর্ণধার অর্ণব রঞ্জন গোস্বামী।

সুপ্রিম কোর্টে অন্তর্বতীকালীন জামিনের আবেদন মঞ্জুর হওয়ার পর গতকালই জেল থেকে বাড়ি ফিরেছেন অর্ণব গোস্বামী। বুধবার রাতেই তিনি রিপাবলিক টিভির তরফ থেকে পর্দায় ফেরেন। মূখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে হুঁশিয়ারি দিয়ে নিউজরুম থেকে তিনি বলেন, “উদ্ধব ঠাকরে, আপনার জন্য আমার একটা বার্তা আছে। আপনি হেরে গেছেন।”

এখানেই শেষ নয়, স্টুডিওয় ফিরে ‘ভুয়ো’ মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করার জন্য উদ্ধব ঠাকরেকে কার্যত তুলোধুনো করেন জনপ্রিয় এই সাংবাদিক। তিনি বলেন, “উদ্ধব ঠাকরে, একটা পুরোনো মিথ্যে মামলায় আপনি আমাকে গ্রে’ ফ’ তার করেছেন, আর তার জন্য আমার কাছে ক্ষমাও চাননি।” এরপরই তিনি যোগ করেন, “এবার খেলা শুরু।” অর্থাৎ উদ্ধব ঠাকরেকে যে অর্ণব গোস্বামীকে হেনস্থার পাল্টা ধাক্কা সহ্য করতে হবে, সেই ইঙ্গিতই গতকাল দেন অর্ণব।

পাশাপাশি গতকাল আগামী এক বছরের মধ্যে বিভিন্ন ভাষায় রিপাবলিক টিভির নেটওয়ার্ক চালু করার কথা জানিয়েছেন অর্ণব গোস্বামী।এছাড়াও আন্তর্জাতিক মানে পৌঁছে যাওয়ার কথাও বলেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে ফের মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তাঁর আক্রমণ, “জেলে বসেও আমি কাজ করে যেতে পারি। পারলে আমাকে আটকে দেখান।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দুবছর আগে ২০১৮ সালে এক ইন্টিরিয়র ডিজাইনার অন্বয় নাইক এবং তাঁর মায়ের আ’ ত্ম’ হ’ ত্যা’ য়’ প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গত ৪ঠা নভেম্বর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় অর্ণব গোস্বামীকে। ওই ব্যক্তির সু’ ই’ সা’ ই’ ড’ নোটে অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ছিল বলে জানা গেছে। গ্রেফতারির পর থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের জন্য অর্ণব গোস্বামী আবেদন করেছিলেন আলিবাগ আদালত এবং মুম্বাই হাইকোর্টে। কিন্তু তাঁর আবেদন নাকচ করা হয়। তারপরই জামিনের জন্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন তিনি। গতকাল শীর্ষ আদালতে তাঁর জামিন মঞ্জুর হয়।

Reply