শিশুদের সাইবার সুরক্ষায় নয়া অ্যাপ, আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার পেল বাংলাদেশি কিশোর

শিশুদের সাইবার বুলিং আর অনলাইন অপরাধের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ ১৭ বছর বয়সেই। আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার পেল বাংলাদেশি কিশোর সাদাত রহমান।

সাইবার অপরাধ থেকে শিশুদের সুরক্ষা নিয়ে একটি অ্যাপ তৈরি করে ফেলেছে সাদাত নড়াইল। আবদুল হাই সিটি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির এই কিশোর অনেকদিন থেকেই সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে কাজ করছে। একটি সাক্ষাৎকারে সাদাত বলে, ‘বর্তমানে আমরা যে সময়ে বাস করছি, সেখানে সাইবার বুলিং একটি অন্যতম প্রধান সমস্যা। এর খারাপ দিকটি নিয়ে অনেকেই অবগত নন। আমাদের সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।’ ইতিমধ্যেই বন্ধুদের সহায়তায় ‘নড়াইল ভলেন্টিয়ারস’ নামের একটি সামাজিক সংগঠন শুরু করেছে সাদাত।

এই সংগঠন বেসরকারি সংস্থা একশনএইডের ‘ইয়ুথ ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ-২০১৯’-এ বিজয়ী হয়ে পুরষ্কার পায়। সেই পুরষ্কারের টাকা দিয়েই তারা ‘সাইবার টিনস’ মোবাইল অ্যাপ তৈরি করে। এ অ্যাপের মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীরা জানতে পারে কীভাবে ইন্টারনেট দুনিয়ায় সুরক্ষিত থাকতে পারে।

প্রায় ১ হাজার ৮০০ কিশোর-কিশোরী এই অ্যাপটি ব্যবহার করছে। ইতিমধ্যেই এই অ্যাপের মাধ্যেম ৬০টিরও বেশি অভিযোগ দায়ের হয়েছে ও অধিকাংশেরই মিমাংসা হয়েছে। ৮ জন অপরাধীর শাস্তিও হয়েছে।

২০০৫ সালে রোমে অনুষ্ঠিত নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ীদের এক শীর্ষ সম্মেলন থেকে এই পুরস্কার চালু করে ‘কিডস-রাইটস’ নামে একটি সংগঠন। শিশুদের অধিকার উন্নয়ন ও নিরাপত্তায় অসাধারণ অবদানের জন্য প্রতিবছর আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার দেওয়া হয়। ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীরা ওই পুরস্কার পাওয়ার যোগ্য। এই বছর ৪২টি দেশের ১৪২ জন শিশুর মনোনয়নের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছিল এ প্রতিযোগিতায়।Read More

Reply