ছুটির মেজাজে থাকলে দলকে জেতানো যায় না, গান্ধী পরিবারকে কটাক্ষ বিজেপির

কোন নির্বাচনে জিততে পারে না কংগ্রেস। প্রতিটি নির্বাচনেই প্রায় ধরাশায়ী অবস্থা হয় তাদের। কিন্তু এমনটা কেন হয়? স্বাভাবিকভাবেই বারবার এই প্রশ্ন ওঠে।

এবার সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেল বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যর কাছ থেকে। অমিতের কথায়, কংগ্রেস নেতৃত্ব সবসময় যেন ছুটির মেজাজে থাকে।

অন্যদিকে বিজেপি নেতৃত্বের নিজেদের দলকে জেতাতে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছুটে বেড়াচ্ছে। এইভাবে গান্ধী পরিবারকে কটাক্ষ করেন অমিত মালব্য।

বিহার বিধানসভা নির্বাচনে শুধু নয় আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যের উপনির্বাচনে শোচনীয় অবস্থার সম্মুখিন হতে হয়েছে শতাব্দীপ্রাচীন এই কংগ্রেসকে।

দলীয়কর্মী থেকে শুরু করে জোট সঙ্গীরা সকলেই এর কারণ হিসেবে শীর্ষ নেতৃত্বকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে। একইসঙ্গে সমালোচনামুখর হয়েছে বিরোধীরা। এবার বিজেপির আইটি সেলের প্রধান সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আ’ক্র’মণ করলেন সরাসরি কটাক্ষ করলেন।

নিজের টুইট বার্তায় অমিত লেখেন,”সোনিয়া এবং রাহুল গান্ধী গোয়ায় ছুটি কাটাচ্ছেন। প্রিয়াঙ্কা রয়েছেন হিমাচলে। এমন সময় বাংলা থেকে ফিরেই তামিলনাড়ুতে ছুটেছেন অমিত শাহ।

শীঘ্রই সর্বভারতীয় সভাপতি ১০০ দিনের জন্য সফরে বের হবেন। একমাত্র লক্ষ্য দলের ক্ষমতা, পরিধি বৃদ্ধি।” তিনি আরও লেখেন,”এরপরেও বিজেপির জয় দেখে ওঁরা হতবাক হয়!” অমিতের কথায় যে কংগ্রেস আর বিজেপির তুলনমূলক আলোচনা উঠে এসেছে,তার বিন্দমাত্র সন্দেহ নেই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,বিহার নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বের পূর্বেই ছুটি কাটানোর জন্য সিমলা চলে গিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন নির্বাচনে নিজেদের দলকে জেতাতে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে প্রচারকার্য শুরু করেছেন ঠিক সেইসময় বিলাসিতায় মেতেছিলেন রাহুল।

তার এই গাছাড়া ভাব নিয়ে দলের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়েছে। শুধু তাই নয় বিরোধীরাও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি রাহুল গান্ধীকে।

Reply