“দুয়ারে দুয়ারে গেলে কাটমানির হিসাব চাইবেন”, মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ লকেট-সায়ন্তনের

একুশের নির্বাচন খুব বেশি দেরি নেই। ইতিমধ্যেই নির্বাচনের জয়লাভের জন্য শাসকদল থেকে বিরোধী দল সকলেই ময়দানে নেমে পড়েছে।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিছুদিন আগে থেকে,”দুয়ারে দুয়ারে সরকার” নামক নতুন এক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন। এবার সেই প্রকল্প নিয়েই রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে গেছে। গেরুয়া শিবিরের সায়ন্তন বসু এবং লকেট চট্টোপাধ্যায় এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি।

বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু বলেন,”ভাল বলেছে। মরণকালে হরিনাম। এতদিন সরকার কি আকাশে ছিল? আকাশ থেকে নেমে দুয়ারে যেতে যেতে নির্বাচন ঘোষণা হয়ে যাবে। আমরা বলছি, দুয়ারে দুয়ারে গেলে কাটমানির হিসাব চাইবেন। শিল্পের কী হল? আইনশৃঙ্খলার এই হাল কেন? এসব প্রশ্নের উত্তর চাইবেন।”

একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। ২০১৯ সালে “দুয়ারে দুয়ারে পদ্মের আগমনি” নামক এক কর্মসূচি চালু করে।

সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, সেই কর্মসূচিকে নকল করেছে রাজ্য সরকার। তিনি বলেন,”৫০০ কোটি টাকা দিয়ে যাঁকে ভাড়া করে আনা হয়েছে তিনি কী স্ট্র্যাটেজি কষছে? শেষ পর্যন্ত বিজেপিকে কপি করতে হল? এ রাজ্যে কপি, পেস্টের সরকার চলছে।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,বাঁকুড়া প্রশাসনিক সভা থেকে সোমবার দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় “দুয়ারে দুয়ারে সরকার” নামে একটি প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন। তাঁর এই প্রকল্প অনুযায়ী,আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রশাসনের তরফে ব্লকে ব্লকে ক্যাম্প করা হবে।

এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কথা শোনা হবে। এমনকি সেই সব সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করা হবে। তৎক্ষণাৎ সমাধান করা না গেলে অভিযোগের তালিকা তৈরি করে নেওয়া হবে। এখন এই প্রকল্প নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

Reply