কৈলাস বিজয়বর্গীকে “চম্বলের ডাকাত” বলে কটাক্ষ ফিরহাদ হাকিমের

বর্তমানে সবচেয়ে চর্চিত বিষয় হল তৃণমূল ও বিজেপি দ্বন্দ্ব।সম্প্রতি বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয় বর্গী কি চম্বলের ডাকাতদের কটাক্ষ করেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম। তার মতে প্রকৃত এক শিল্পানুরাগী একমাত্র মমতা, তার সাথে চলে না কারো তুলনা।

মঙ্গলবার জয়নগরে বিজেপির সবাই ক্ষমতায় এলে রাজ্যের সমস্ত ষাটোর্ধ্ব লক্ষ্য শিল্পীকে পেনশনের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

এই নিয়ে ফিরহাদ হাকিম এর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি তাঁকে চম্বলের ডাকাত বলে অভিহিত করেন। প্রসঙ্গত, লোকশিল্পীদের জন্য ইতিপূর্বেই মমতা ব্যানার্জি গ্রহণ করেছেন অনেক প্রকল্প। তাদের বিশেষভাবে মাসোহারা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি।এখানে বিজয় বর্গী নকল করছেন বলে অভিযোগ তোলে তৃণমূল।

এদিন ফিরহাদ হাকিম বিজিবি শিল্প সভ্যতা সংস্কৃতি সম্পর্কে জ্ঞান নিয়ে কটাক্ষ করেন।তার বক্তব্য বাংলায় কৃষ্টি সংস্কৃতি সম্পর্কে বাংলার বহিরাগতদের কতটুকু জ্ঞান থাকতে পারে? বাংলার বিজেপি নেতাদের বেশিরভাগই বহিরাগত,সে ক্ষেত্রে বাঙলায় কত বাউল, কত লোক শিল্পী আছে সে সম্পর্কে তারা জানবে কি করে?

এদিন তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রকল্প গুলির কথা উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, মমতা ব্যানার্জি ক্ষমতায় আসার পরেই শিল্পীদের সাহায্যে উদ্যোগী হয়েছিলেন। তিনি এও বলেন, বিজেপি অন্ধ অনুকরণ করার চেষ্টা করছে, কিন্তু অনুকরণ করে বাংলা লোকের মন পাওয়া সম্ভব না।

এছাড়াও লোকশিল্পীদের বিজেপিকে ক্ষমতায় আনতে অনুরোধ করেন কৈলাস। তিনি বলেন বিজেপি ক্ষমতায় এলে রাজ্যে উপযুক্ত ধর্মের শাসন আসবে, ধর্ম কথায় রাজ্যকে সমৃদ্ধ করে দেয়া হবে। কিন্তু ভবিষ্যতে জনগণ কাকে বেছে নেবেন, তা সময়ই বলবে।

Reply