Saturday , September 18 2021
Breaking News

আদানিকে‌ ঋণ নয়, এমন দাবির প্ল্যাকার্ড ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে

নজিরবিহীন প্ল্যাকার্ড দেখা গেল ভারত অস্ট্রেলিয়া ওয়ান-ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে। স্টেডিয়ামের ভিতরে এবং বাইরে থাকা দর্শকরা হয়ে উঠলেন প্রতিবাদী। তাদের হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে লেখা, ‘স্টেট ব্যাংক আদানিদের এক বিলিয়ন ঋণ দেওয়া বন্ধ করুন’।

অভিযোগ উঠেছে ভারতের আদানি গোষ্ঠী এমন একটি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত যা পরিবেশের ক্ষতি করছে। ওই প্রকল্পটি নিয়ে এখন অস্ট্রেলিয়া রীতিমতো তোলপাড়। ফলে আদানি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে ওদেশের স্থানীয় মানুষ। ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচেই সেই প্রতিবাদেরই ঝলক দেখা গেল। দু’জন প্রতিবাদী একেবারে মাঠে ঢুকে পড়লেন প্ল্যাকার্ড হাতে।

ম্যাচের ষষ্ঠ ওভারে নভদীপ সাইনি বোলিং করতে যাওয়ার সময় এমন ঘটনাটি ঘটে। মাঠে ঢুকে পড়া প্রতিবাদী দু’জন ছাড়াও এদিন স্টেডিয়ামের বাইরেও প্ল্যাকার্ড হাতে বহু মানুষ আদানি ও স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল হয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে একটি কয়লা খনির জন্য লগ্নি করেছে আদানি গোষ্ঠী। অভিযোগ উঠেছে সেই কয়লা খনির কাজ শেষ হলে বিশ্ব উষ্ণায়ন নতুন করে সমস্যা তৈরি করবে। এমনকী গ্রেট বেরিয়ার রিফ-ও ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আদানি গ্রুপকে এই প্রকল্পের জন্য ঋণ দিচ্ছে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া।

ম্যাচ চলাকালীন প্রতিবাদকারী বেন বোর্ডে জানিয়েছেন, লক্ষ লক্ষ করদাতাদের টাকা ঋণ হিসাবে একজন বিলিয়নিয়ারের হাতে তুলে দিচ্ছে স্টেট ব্যাংক। কিন্তু এই ঋণ ওদের দেওয়া উচিত নয়। এই প্রকল্প হলে পরিবেশের বড় ক্ষতি হয়ে যাবে। তাই প্রতিবাদের মঞ্চ হিসাবে এই ম্যাচকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। ভারতীয়দের জানাতে চাই, এই প্রকল্প হলে পরিবেশের অনেক সমস্যা মাথা চাড়া দেবে।

এদিকে,এমন ঘটনা ঘটায় অস্ট্রেলিয়ার মাঠে ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। অভিযোগ উঠেছে দুই প্রতিবাদীকে মাঠ থেকে বের করতেও নিরাপত্তারক্ষীদের ঢিলেমি ছিল।

About M..

Check Also

ট্রফিতে চুম্বন মেসির।

দুঃখ পেয়েছি বহু বার, তবে জানতাম একদিন দেশের হয়ে ট্রফি জিতবই, বললেন মেসি

এই মুহূর্তটাই দেখতে চাইছিল বিশ্ব। এই মুহূর্তটাই দেখতে চাইছিলেন তাঁর অগণিত অনুরাগীরা। লিয়োনেল মেসির হাতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *