মালেগাঁও বি’ স্ফো’ র’ ণ মামলায় প্রজ্ঞা ঠাকুর-সহ অভিযুক্তদের স্বশরীরে হাজিরার নির্দেশ

মালেগাঁও বি’ স্ফো’ রণ মামলায় আইনি প্যাঁচে বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর। আগামী ১৯ ডিসেম্বর প্রজ্ঞা ঠাকুর-সহ মামলায় অভিযুক্তদের স্বশরীরে আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দিল মহারাষ্ট্রের বিশেষ আদালত। ২০০৮ সাল থেকে চলা মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করতে তৎপর হয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার মালেগাঁও বি’ স্ফো’ রণ মামলায় অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত মধ্যপ্রদেশের ভোপালের বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর-সহ বাকি অভিযুক্তদের আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

তবে এদিন মাত্র তিন অভিযুক্ত ছাড়া বাকি কেউই আদালতে হাজির ছিলেন না। সেই কারণেই এবার আরও কড়া অবস্থান মহারাষ্ট্রের বিশেষ আদালতের। আগামী ১৯ ডিসেম্বর সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর-সহ সব অভিযুক্তদের আদালতে স্বশরীরে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মালেগাঁও বি’ স্ফো’ রণ মামলায় প্রজ্ঞা ঠাকুর-সহ চার অভিযুক্ত করোনা পরিস্থিতির দোহাই দিয়ে এদিন আদালত-হাজিরা এড়িয়েছেন। প্রত্যেকেই আইনজীবী মারফত বর্তমান করোনা আবহে আদালতে আসতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন।
মহারাষ্ট্রের বিশেষ আদালত সেই আবেদনে আপাতত মান্যতা দিয়েছেন। তবে এবার মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করতে চায় আদালত। সেই কারণেই আগামী ১৯ ডিসেম্বর বিজেপি সাংসদ-সহ মালেগাঁও বিস্ফোরণ মামলায় সব অভিযুক্তদের আদালতে স্বশরীরে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

২০০৮ সালে মালেগাঁও বিস্ফোরণে ৬ জনের মৃ’ ত্যু’ হয়েছিল। শতাধিক মানুষ। বি’ স্ফো’ র’ ণ জ’ খ’ ম হয়েছিলেন। তারপর থেকেই মামলা চলছে। এবর সেই মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করতে চায় আদালত।

Reply