“আমি তো পাগলা ষাঁড় হয়ে যাইনি”, তৃণমূলে থাকার অঙ্গীকার করলেন শুভেন্দুর দাদা দিব্যেন্দু

তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে গেছেন শুভেন্দু অধিকারী। এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন শুরু হয়,তবে কি এবার শুভেন্দুর বাবা শিশির অধিকারী এবং ভাই দিব্যেন্দু অধিকারি এবার গেরুয়া শিবিরে যোগদান করবেন।

সকল জল্পনার অবসান ঘটালেন দিব্যেন্দু অধিকারি। তিনি বলেন,”দল ছাড়ছি না”।তবে এই নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া দেননি শিশির অধিকারি।

শনিবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে দিব্যেন্দু অধিকারী বলেন,”এটা শুভেন্দু অধিকারীর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। একই পরিবারে আছি। তবে আমি তৃণমূলের সাংসদ আছি, থাকব।

আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগত সৈনিক। আগামিদিনেও থাকব।” তাঁকে বিজেপিতে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা রয়েছে কিনা জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন,”এটি অমূলক প্রশ্ন। আমি তো আর পাগলা ষাঁড় হয়ে যাইনি। আমার অবস্থান স্পষ্ট।”

শুভেন্দুর দল পরিবর্তনের বিষয়টি ভালো চোখে দেখছেন না অনেকেই। এই নিয়ে পাঁশকুড়া পূর্বের তৃণমূল বিধায়ক ফিরোজা বিবি বলেছেন,”নন্দীগ্রামের সেন্টিমেন্ট নিয়ে উনি খেলা করলেন। সেটা ভাল কাজ করলেন না। নন্দীগ্রামবাসী হিসেবে কেউ সেটা ভালভাবে দেখবেন না।”

তাঁর প্রশ্ন,”তাহলে ওঁর এতদিনের অভিনয়ের মানে কী? নন্দীগ্রাম-কাণ্ডের জেরেই আজ পর্যন্ত আমার পরিবারের সকলেই প্রায় নানা অসুখ-বিসুখে ভুগছেন। সেসব দিন আমরা ভুলিনি। তিনি এতটাই আমাদের চোখের নিচে নেমে যাবেন তা কখনওই ভাবতে পারিনি।”

অন্যদিকে, শুভেন্দুকে দিল্লি যেতে বলেছেন অমিত শাহ। প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে সেখানেই বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। মেদিনীপুর কলেজ মাঠে সভার পর বিজেপি কার্যকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে শুভেন্দু জানান,”আমি ইনফ্যান্টের বাচ্চা। এই মিটিং থেকে অনেক কিছু শিখলাম।”

Reply