কেষ্ট শুধু ঝগড়া করে না, উন্নয়নটাও বোঝে! অনুব্রতের প্রশংসায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা

সোমবার বীরভূমের প্রশাসনিক বৈঠকে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ওরফে কেষ্টর ভূয়সী প্রশংসা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, “কেষ্ট সব জানে। যারা বলে কেষ্ট শুধু ঝগড়া করে, তারা জানে না ডেভেলপমেন্টের কাজটা ভালো বোঝে সবার থেকে ও”।

এদিনের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বিধায়ক থেকে শুরু করে জেলা পরিষদের মেন্টর সকলেই নিজেদের দাবি জানান। প্রত্যেক ব্যক্তির মুখে একটাই কথা, কেষ্ট দা নাকি সব জানেন।

মুরারইয়ের বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন রাখতে গিয়ে তিনি একই কথা বলেন। ঠিক সেই সময়েই বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের ভূয়শী প্রশং’সা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২০১৩ পঞ্চায়েতে ভোটের সময় রাজ্য নির্বাচন কমিশনার মিরা পান্ডের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র সঙ্ঘা’ত শুরু হয়। সেই সময় অনুব্রত মণ্ডল একটি সভা থেকে বলেছিলেন, “সিম্বল একটাই। সেটা জোড়া ফুল।

যদি কেউ নির্দল প্রার্থীকে ভোট দিতে বলে তাহলে তাকে বো’ম মারুন। পুলিশ যদি আটকায় তাহলে পুলিশের গাড়িতে বো’ম মারুন। আমি বলছি বো’ম মারতে।”

অনুব্রতর এই মন্তব্য নিয়ে যখন রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বীরভূমে গিয়ে বলেছিলেন, অনুব্রতর মা’থায় অক্সিজেন একটু কম যায়।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন, অনুব্রত মণ্ডল মুখ্যমন্ত্রীর খুব কাছের এক মানুষ। কারণ হিসেবে বলা যেতে পারে, গত লোকসভা নির্বাচনে বিভিন্ন এলাকায় বিজেপি জিতে ছিল।

কিন্তু অনুব্রতর এলাকায় পদ্মফুল ফোটে নি। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের আগে অনুব্রত মণ্ডলের প্রশং’সা করে দলীয় কর্মীদের চা’ঙ্গা করতে চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Reply