2020-র কুশ পুতুল দাহ করে বিদায় জানাল সাধারণ মানুষ

2020 শুধুই ‘বিষময়’, বিষাদময়। এই দাবি করে 2020 এর কুশ পুতুল দাহ করলেন বালুরঘাটের রঘুনাথপুর এলাকার স্থানীয়রা। 2021’এর বরণ লগ্নে শেষ পর্যন্ত 2020’কে অভিনব কায়দায় বিদায় জানিয়ে নজির করল সংস্কৃতির শহর বালুরঘাট।

করোনা, আমফান সহ নানান দুর্যোগে একের পর এক প্রিয়জনের মৃত্যু। চারিদিকে শুধুই ভয়,আতঙ্ক আর হাহাকার। ইংরেজি বর্ষশেষের ক্ষনেও যা মানুষকে তাড়া করে বেড়াচ্ছে।

2020 সালে একের পর এক দুঃসংবাদ ও দুঃখজনক ঘটনায় এতটাই ক্ষুব্ধ মানুষজন যে তার নামে কুশ পুতুল বানিয়ে আগুনে দাহ করলেন। যাতে আর যেন কখনও এমন দুঃসময় ফিরে না আসে। অভিশপ্ত এই বছরকে বিদায় জানানোর পাশাপাশি 2021’এ সবার শুভ কামনাও জানিয়েছেন তাঁরা।

আশা-হতাশা এবং করোনা সংকটের মাঝে এবার নতুন বছর উদযাপিত হয়েছে। ২০২১ সাল শুরু হয়েছে নাইট কার্ফু, করোনার নির্দেশিকা এবং প্রোটোকলের মধ্যে দিয়ে।

এই ২০২০ কে বিপর্যয়ের বছর হিসেবে আখ্যা দিলেও খুব একটা অত্যুক্তি হয় না। ২০২০ কে জখম করেছে একের পর এক দুর্ঘটনা। বেশ কিছু প্রাকৃতিক দুর্যোগও এই বছর এসেছে যা সর্বদা মানুষের মনে থাকবে। এরমধ্যে কিছু দুর্ঘটনা প্রাকৃতিক ভাবে ঘটেছে, আবার কিছু দুর্ঘটনা ঘটেছে নৃতাত্ত্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে। আর তাই ২০২০ সাল যে শুধু ভাইরাসের সাল হিসেবে বিবেচিত থাকবে তাই না, এটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে বিপর্যয়ের সাল হিসেবেও।

ফিলিপাইনের আগ্নেয়গিরি জেগে ওঠা থেকে শুরু করে, তুরস্কের ভয়াবহ ভূমিকম্প, অস্ট্রেলিয়ার দাবানল, ক্যালিফোর্নিয়ার বনাঞ্চলে আগুন, সাইক্লোনে মধ্য আমেরিকা ও ক্যারিবীয় উপকূলে ব্যাপক বিপর্যয়ের সৃষ্টি এরওপর আম্ফানের মতো ভয়াবহ সাইক্লোন ও করোনার মতো এক মারণ ভাইরাস। সব মিলিয়ে আঘাতে আঘাতে জর্জরিত ২০২০।

Reply