“রাজীব গান্ধী আমাকে দেখিয়ে বলেছিলেন, ওঁর মতো হও”,স্মৃতি হাতরে বললেন মমতা

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী এবং বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুসম্পর্কের কথা সকলেই জানেন। রাজীব গান্ধীর আমলে কংগ্রেসের হাত ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর আগমন ঘটে রাজনীতিতে।

বাঙালি সংস্কৃতি এবং বিশ্বভারতীকে নিয়ে যে রাজনৈতিক তরজা চলছে সে প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী এক সুখের স্মৃতি পুনর্বার মনে করলেন। বললেন,”এই বিশ্বভারতীতেই রাজীব গান্ধী আমাকে দেখিয়ে বলেছিলেন, ওঁর মতো আইকন হও।”

বোলপুরের সভায় উপস্থিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”বিশ্বভারতী কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়। সাধারণত, বিশ্বভারতীর উপাচার্য প্রধানমন্ত্রী হয়ে থাকেন। সেসময় উপাচার্য ছিলেন রাজীব গান্ধী। তিনি এখানে এসেছিলেন।

সেবার আমি প্রথমবার যাদবপুর থেকে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছি। বিশ্বভারতীর বোর্ড সদস্যও ছিলাম। সেসময় রাজীবজি আমাকে এখানে এনেছিলেন। তিনি তখনও বেশ ইয়ং। অল্পবয়সী ছেলেমেয়েরা ওঁকে বেশ পছন্দ করত। যখন আমরা ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে খেতে বসেছিলাম।

তখন ছাত্র-ছাত্রীরা জিজ্ঞেস করেছিলেন আইকন কার মতো হওয়া উচিত? তখন রাজীব গান্ধী আমায় দেখিয়ে বলেছিলেন ওঁর মতো। একথা বলেছিলেন কারণ উনি জানতেন আমি বাংলাকে ভালবাসি। যদি সন্দেহ হয় তখনকার কাগজে দেখে নেবেন।”

স্মৃতিরোমন্থনের পর আবারও কাজের কথায় ফিরে আসেন মমতা। তিনি বলেন,”আজ যখন দেখি এখানে পাঁচিল তুলে দেওয়া হয়, মানুষের হৃদয়কে কারাগারে নিক্ষেপ করা হয়, আমার ভাল লাগে না।

আমার ভাল লাগে না, যখন দেখি বিশ্বভারতীকে দেখে একটা ঘৃণ্য রাজনীতি শুরু হয়েছে। এখানে এক ঘৃণ্য রাজনীতির আমদানি করা হয়েছে। ঘৃণ্য বলা ভুল, সংকীর্ণ রাজনীতি।”

তাঁর অভিযোগ, বিশ্বভারতীর বর্তমান উপাচার্য বিজেপি ছাপ্পা দেওয়া। একুশের নির্বাচনকে পাখির চোখ করে বাঙালির মন পাওয়ার চেষ্টা করছে বিজেপি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সকলেই এখন বিশ্বভারতীর সঙ্গে যে কতটা একাত্মতা প্রমাণ করতে ব্যস্ত। কিন্তু এদিন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতা প্রমাণ করে, বাংলার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী নিজের কতটা একাত্ম বোধ করেন।

Reply