Tuesday , September 21 2021
Breaking News

“গণতন্ত্র তো মানেন না, অন্তত বানানটা ঠিক লিখুন”, বিজেপিকে কটাক্ষ সোহমের

রাজ্যে নাকি কোনো গণতন্ত্র নেই। বরাবরের জন্য বিজেপি এই অভিযোগ করে এসেছে। এবার গণতন্ত্র বানান ভুল করা নিয়ে তৃণমূলের কটাক্ষের শিকার হতে হল বিজেপিকে। সেই কাজ করলেন অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী। “গণতন্ত্র” বানান ভুল করা নিয়ে কটাক্ষের তীরে বিঁধলেন বিজেপিকে।

একুশের বিধানসভাকে পাখির চোখ করে ইতিমধ্যেই চারিদিকের রাজনৈতিক সরগরম শুরু হয়ে গিয়েছে। ফ্লেক্স ব্যানারে ছেয়ে গিয়েছে বিভিন্ন এলাকা। শাসক-বিরোধী তরজা অব্যাহত।

এবার মিডিয়াজুড়ে বিজেপির বানান ভুল নিয়ে সরব হয়েছে তৃণমূল। বিজেপির এক ফ্লেক্সে এরকমই এক ভুল বানান ভুল দেখেছেন অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী। সেই ভুল বানান নিয়েই বিজেপিকে কটাক্ষ করলেন তিনি।

সোহম চক্রবর্তী নিজে তৃণমূলের সঙ্গে অত্যন্ত ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত। বলা যায় সক্রিয় সদস্য তিনি। ইতিমধ্যেই তার ওপরে এসে পড়েছে একাধিক দায়িত্ব। তাই বিজেপি নেতৃত্বের মূর্ধন্য আর দন্তন্য নিয়ে যে ভ্রান্তি তা দূর করার চেষ্টা করলেন সোহম চক্রবর্তী।

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি সোহম চক্রবর্তী যুব তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক। বিজেপির পক্ষ থেকে একটি সভায়,বাংলায় ‘গনতন্ত্র’হীনতার দাবি করা হয়। কিন্তু সেখানেই বানানের গন্ডগোল।

শুদ্ধ বিজেপিতে যোগদান করা শুভেন্দু অধিকারী নিজের টুইটার প্রোফাইলে কভার ফটো হিসেবে ওই সভার ছবি দিয়েছিলেন।তাতে লেখা- “অপশাসন হাটাও, গনতন্ত্র বাঁচাও”। বানানটা অনেকটা এই রকম ছিল।

বিষয়টি নজর এড়িয়ে যায়নি সোহম চক্রবর্তীর। এরপর তিনি বাংলায় লিখে টুইট করে বলেন, “গণতন্ত্র তো মানেন না, অন্তত শব্দের বানানটা তো ঠিক করে লিখতে পারতেন”। বিজেপিকে ট্যাগ করার পাশাপাশি লজ্জায় মুখ ঢাকার ইমোজিও দিয়েছেন তিনি।

About L..

Check Also

ফাইল চিত্র।

Dilip Ghosh on Babul Supriyo: মন্ত্রী হতে এসেছিলেন যাঁরা, তাঁরা কোথায়? দিলীপের বাবুল-কটাক্ষের লক্ষ্য দিল্লি?

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত দলের উপরতলার দিকে আঙুল তুললেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *